সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা: দুর্গাপুজোর আর মাত্র ২৩ দিন বাকি৷ তার আগেই মর্ত্যে হাজির দুর্গা৷ তবে মহিষাসুরকে বধ করতে নয়, ডেঙ্গু রোগ ছড়ানো মশাসুরকে বধ করতে৷ রবিবাসরীয় সকালে এর সাক্ষী থাকল কলকাতাবাসী৷

সম্প্রতি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে কলকাতা-সহ রাজ্যে প্রায় ১৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে৷ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তের সংখ্যাও নেহাত কম নয়৷ সে খবর বোধহয় আগেভাগেই পৌঁছে গিয়েছে কৈলাসে৷ তাই তো মা খবর পেয়ে ২৩ দিন আগেই স্বর্গ থেকে হাজির হয়েছেন মর্ত্যে৷

রবিবারের সকালে দক্ষিণ কলকাতার মুদিয়ালি ক্লাবের পুজো মণ্ডপে দেখা দুর্গা-মশাসুরের সে কী লড়াই৷ অবশ্য শেষমেশ রণং দেহী মায়ের সামনে হার মানতে বাধ্য হয় অসুর মশা৷ দুর্গা ত্রিশূল দিয়ে বধ করে মশাসুরকে৷ এখানেই শেষ নয়৷ মা দূর্গা ত্রিশূল ছেড়ে এবার হাতে নেন মশা মারার কামান৷ পার্শ্ববর্তী এলাকায় সেই কামানের ধোঁয়া ছড়িয়ে নিধন করেন মশাকে৷

রবিবার এমনই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে দক্ষিণ কলকাতার মুদিয়ালি ক্লাব পুজো কমিটি৷ তাদের এই উদ্যোগে সামিল হয় কলকাতা পুরসভা৷ ক্লাবের সদস্য-সদস্যারা দূর্গা ও মশাসুর সেজে অভিনয় করে৷ দুর্গাপুজোর প্রস্তুতির সঙ্গে সঙ্গে ডেঙ্গু প্রতিরোধে অভিনব সচেতনা শিবির সম্পর্কে মুদিয়ালি ক্লাবের সদস্য মনোজ সাউ বলেন, ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে মানুষকে সচেতন করতেই আমাদের এই উদ্যোগ৷ এছাড়া আমাদের এবছরের দুর্গাপুজোয় মণ্ডপ সেজে উঠছে ডোকরা ও পটচিত্রে৷