কলকাতা: রেড জোন কলকাতার কন্টেনমেন্ট এলাকার তালিকা প্রকাশ করেছে রাজ্য সরকার৷ সেই তালিকায় রয়েছে কলকাতা পুরসভার ৪৯ ওয়ার্ডের কিছু এলাকা৷

এরপরই ৪৯ ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের একাংশ নিজেরাই কিছু পাড়া সিল করে দিয়েছেন৷ এলাকা যে সব রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, সেগুলো হল,অখিল মিস্ত্রি লেনে,নূর মোহাম্মদ লেন,রজনী গুপ্ত রো, রাজ চন্দ্র সেন লেন ও জয় নারায়ণ চন্দ্র লেনসহ একাধিক এলাকা৷

পাড়ায় পাড়ায় বাঁশ বেঁধে আটকে দেওয়া হয়েছে রাস্তা৷ এখানেই শেষ নয়,তাতে প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ সেখানে নীল কালি দিয়ে লেখা রয়েছে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষেধ৷

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি,পাশের ওয়ার্ড থেকে একের পর এক আক্রান্তের খবর শোনা যাচ্ছে৷ ফলে সাধারণ মানুষের মনে বেশ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে৷ এর মধ্যে এলাকা বহির্ভূত বেশ কিছু মানুষ বাইকে করে মাঝে মধ্যেই এলাকায় প্রবেশ করছে৷

এছাড়া ৪৯ ওয়ার্ডে অখিল মিস্ত্রি লেনে কলকাতা পুরসভার যে স্বাস্থ্য দফতর রয়েছে, সেখানে প্রায় সময়ই মানুষ জ্বর নিয়ে প্রবেশ করছেন৷ এর ফলে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় এলাকার মানুষ নিজেরাই বাঁশ লাঠি দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে৷ তাদের দাবি এতে বাইরের এলাকার মানুষদের বাইক বা গাড়ি নিয়ে প্রবেশ বন্ধ করা যাবে৷ করোনা আতঙ্কে এমনভাবে পাড়ার রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে,চট করে পাড়ার ভিতরে কেউ ঢুকতে পারবে৷

অভিযোগ, স্থানীয় কাউন্সিলরকে পাড়ায় তেমন দেখা যায়নি৷ তবে এলাকার বিধায়ক নয়না বন্দ্যোপাধ্যায় এসে বাসিন্দাদের মধ্যে খাবার বিতরণ করে গিয়েছেন৷ বিধায়কের নির্দেশেই এলাকার এক পুজো কমিটি আমরা সবাই ক্লাবের উদ্যোগে বাড়ি বাড়ি গিয়ে থার্মাল চেকিং করছে৷

এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে অনেকেই এই লকডাউনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসহায় মানুষের মধ্যে চাল ডাল খাদ্য শস্য বিতরণ করছেন৷ লেডি ডাফরিন হাসপাতালে ও স্থানীয় পুরসভার স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডাক্তার ও স্বাস্থ্য কর্মীদের মধ্যে PPE,সাবান বিতরণ করা হয়৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV