তাইপেই: এশিয়ায় প্রথমবার আইনি বৈধতা পেল সমকামী বিয়ে। শুক্রবার সমকামী বিয়েতে শিলমোহর দিল তাইওয়ান।

সেই দেশের পার্লামেন্টে পাশ হল এই আইন। দেশটির এলজিবিটি (লেসবিয়ান, গে, বাইসেক্সুয়াল ও ট্রান্সজেন্ডার) সম্প্রদায়ের মধ্যে উচ্ছ্বাস চোখে পড়ার মত। পার্লামেন্টের বাইরে রামধনূ রঙা পতাকা ওড়াচ্ছে অনেকে। বছরের পর বছর ধরে বিয়ের অধিকার চেয়ে দ্বীপ দেশটিতে তারা আন্দোলন করে আসছেন।

শুক্রবার প্রচণ্ড বৃষ্টি উপেক্ষা করে চূড়ান্ত ভোটের প্রাক্কালে তাদের পার্লামেন্ট ভবনের সামনে জড়ো হতে দেখা যায়।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে তাইওয়ানের সাংবিধানিক আদালত এক রায়ে সমকামী বিয়ের বৈধতা দেয়। আদালত পার্লামেন্টকে আইন পাশ করতে নির্দেশ দেয়, যাতে আদালতের রায় বাস্তবায়িত হয়। এর জন্য দু’বছরের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। চলতি বছরের ২৪ মে সেই সময় শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তাই নির্ধারিত সময়ের আগেই আইন পাশ করল তাইওয়ানের পার্লামেন্টে।

এর আগে সমকামী বিয়ে প্রশ্নে তাইওয়ানে গণভোটের আয়োজন করা হয়। দেশটির অধিকাংশ ভোটাররা সমকামী বিয়ের বিপক্ষে ভোট দেয়। তখন সরকার জানায়, তারা প্রচলিত বিয়ের বাইরে ‘সমকামী’ বিয়ে বিষয়ে বিশেষ আইন পাশ করবে।

পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতারা তিনটি বিল নিয়ে আলোচনা করেছেন। এরমধ্যে কনজারভেটিভ আইনপ্রণেতারা ‘সেম-সেক্স ফ্যামেলি রিলেশনশিপ্স’ ও ‘সেম সেক্স ইউনিয়ন’ প্রস্তাব করেছিল।