গুয়াহাটি: অসমের হাসপাতালে ঘটা এক সাধারণ অপারেশন আচমকাই খবরের শিরোনামে। রোগীর মূত্রথলির ভেতর থেকে ডাক্তারেরা পেলেন মোবাইল ফোনের চার্জার, কেবল। কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা নিয়েও শুরু হয়েছে যথেষ্ট আকর্ষণ। যদিও ডাক্তারেরা এই ঘটনার পরে কিভাবে তা ঘটেছে তা নিয়ে বিস্তারিত ভাবে জানিয়েছেন।

ডাক্তারদের তরফে জানানো হয়েছে ওই ৩০ বছর রোগী তাদের কাছে এসে মিথ্যে জানিয়েছিল যে সে মোবাইল চার্জার গিলে ফেলেছিল। প্রায় দুই ফুটের কাছাকাছি লম্বা ওই চার্জার কেবল ওই ব্যক্তি গিলে ফেলেছিল শুনে তৎক্ষণাৎ পরীক্ষা করা শুরু করেছিলেন চিকিৎসকেরা। কিন্তু অপারেশন টেবিলে গিয়ে দেখা গেল বিষয়টি আদপেও তা নয়। ওই ব্যক্তি চার্জারের কেবল নিজের যৌনাঙ্গ দিয়ে প্রবেশ করিয়েছিলেন শরীরের ভেতরে।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন পেটের যন্ত্রণা নিয়ে ওই রোগী এসে তাদের জানিয়েছিলেন সে মোবাইল চার্জারের কেবল গিলে ফেলেছিল। কিন্তু তারা একাধিক পরীক্ষার পরেও কিছু পাননি। বরং অপারেশন করতে গিয়ে সেই কেবল খুজে পেলেন মূত্রথলিতে।

যদিও কেবলটি ওই রোগীর শরীর থেকে বার করে নেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছে ওই রোগী। ডঃ অয়ালিউল ইসলাম জানিয়েছেন তিনি দীর্ঘ ডাক্তারি জীবনে এই ধরনের ঘটনা দেখেননি। তিনি জানিয়েছেন অপারেশন টেবিলে এক্সরে করতে গিয়ে বুঝতে পারেন কেবলটি তার শরীরে কোথায় রয়েছে। এও জানিয়েছেন ওই রোগীর নিজের যৌনাঙ্গ দিয়ে বিভিন্ন ধরনের জিনিস ঢোকানোর স্বভাব রয়েছে। সেই ভাবেই এই কেবলটি ঢোকানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তা মূত্র থলিতে চলে যাওয়াতে অসুবিধার মধ্যে পড়েছিলেন। ওই রোগীর কোন রকম মানসিক সমস্যা নেই বলেও জানিয়েছেন ওই ডাক্তার।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV