তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি গুলি অধিগ্রহণ, বাস্তুহারা পরিবার গুলির সমানুপাতিক পূনর্বাসন, ও চাকরির দাবিতে বাঁকুড়ার বড়জোড়ার বাগুলিয়া কোলিয়ারীর গেটের সামনে আমরণ অনশনে বসেছেন গ্রামবাসীরা। সোমবার থেকে এই অনশনে মনোহর গ্রামের কর্মকার পাড়ার শিশু থেকে বৃদ্ধ এমনকি মহিলারাও এই অনশনে অংশ নিয়েছেন।

অনশনকারীদের দাবি, কোলিয়ারীতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণের জেরে গ্রামের অধিকাংশ বাড়িতেই ফাটল ধরেছে। যে কোনও সময় তা হুড়মুড়িয়ে পড়লে মাথার উপর শেষ আশ্রয় টুকুও তাঁরা হারাবেন। কোলিয়ারী কর্তৃপক্ষ থেকে প্রশাসনকে বারবার বিষয়টি জানালেও কোনও কাজ হয়নি বলে অভিযোগ। অবশেষে সরকারি ক্ষতিপূরণ, পূনর্বাসন এবং চাকরির দাবিতে কোলিয়ারীর গেটের সামনে ‘অনশন মঞ্চ’ তৈরি করে আমরণ অনশনে বসলেন তাঁরা।

এদিন অনশনে মঞ্চে বসে উত্তম কর্মকার, মিতালী হালদাররা বলেন, আমাদের পূনর্বাসনের আশ্বাস দেওয়া হলেও এখনও তা হয়নি। যেভাবে দিনের পর দিন কয়লা খনিতে বিস্ফোরণ ঘটানো হচ্ছে তাতে আমরা যে কোনও সময় বাড়ি চাপা পড়ে মারা যেতে পারি।

বাড়ি চাপা পড়ে মৃত্যুর চেয়ে অনশন করে মৃত্যু অনেক ভালো দাবি করে তাঁরা আরও বলেন, বিষয়টি বার বার প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি। বিগত ১০ বছর ধরে পূনর্বাসন ও চাকরির দাবি তাঁরা জানালেও কেউ কর্ণপাত করেনি। এই অবস্থায় পূনর্বাসন ও চাকরির ব্যবস্থা করা না হলেও ওই কয়লা খনি বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। দাবি পূরণ না হলে আমরণ অনশন চালিয়ে যাবেন বলেও জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।