সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা: রাত পোহালেই লোকসভার ভোট গণনা৷ নিরাপত্তার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি মোতায়েন থাকবে কলকাতা পুলিশের ৪ হাজার কর্মী৷ এছাড়া রাজ্যের অন্যান্য গণনা কেন্দ্রের নিরপত্তাও জোরদার করা হয়েছে৷

নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, কলকাতায় ১০টি স্ট্রং রুম রয়েছে৷ সেখানে কড়া নিরাপত্তায় রয়েছে ইভিএম মেশিন৷ নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী৷ অন্যদিকে লালবাজার সূত্রে খবর, কাউন্টিং হলের বাইরের নিরাপত্তার দায়িত্বে বাহিনীর পাশাপাশি থাকবে কলকাতা পুলিশ৷ মোতায়েন থাকবে কলকাতা পুলিশের ৪ হাজার কর্মী৷ নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম, আলিপুরে হেস্টিংস হাউস এবং বিজয়গড়ের গণনা কেন্দ্রে কলকাতা পুলিশের দু’জন করে ডেপুটি কমিশনার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন৷ এছাড়া স্পর্শকাতর এলাকাতেও কলকাতা পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর নজরদারি চলছে৷

কলকাতায় যে সব জায়গায় কাল ভোট গণনা হবে তা হল আলিপুরে হেস্টিংস হাউস,যেখানে দক্ষিণ ২৪ পরগণার ডায়মন্ড হারবার লেকসভা কেন্দ্রের ভোট গণনা হবে৷ এছাড়া নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কলকাতা উত্তর কেন্দ্রের ভোট গণনা৷ কলকাতা দক্ষিণ কেন্দ্রের গণনা হবে ঠাকুরপুকুর বিবেকানন্দ কলেজ, ডায়মন্ড হারবার রোডে সেন্ট টমাস বয়েস স্কুল, শাখওয়াত মেমোরিয়াল গার্লস স্কুল, বালিগঞ্জ গভঃ স্কুল, ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনির্ভাসিটি অফ টিচার্স ট্রেনিং এডুকেশন প্ল্যানিং এন্ড এ্যাডমিনিস্ট্রেশন৷ এবং যাদবপুর কেন্দ্রের গণনা বিজয়গড় জ্যোতি রায় কলেজ ও কসবা গীতাঞ্জলী স্টেডিয়াম৷ ও জোকার ব্রতচারী বৃদ্ধাশ্রম হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল৷

রাজ্যে গণনাকেন্দ্র ঘিরে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। স্ট্রং রুম, কাউন্টিং হলে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। কাউন্টিং হলের বাইরে অর্থাৎ মূল গেটে থাকবে সশস্ত্র রাজ্য পুলিশ৷ গণনা কেন্দ্রের ১০০ মিটার পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। মোবাইল নিয়ে কেউ কাউন্টিং হলে ঢুকতে পারবে না৷ এমনটাই নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের৷ সেক্ষেত্রে ভিতরে মোবাইল জমা রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷