নয়াদিল্লি: ভারতীয় সেনা প্রথমবারের জন্য মহিলা সেনা নিয়োগ শুরু করেছে। বৃহস্পতিবারই শুরু হয়েছে এই কাজ। পাঁচটি ছাউনির জন্য সেনা পদে নিয়োগ শুরু করা হবে। লখনউ, বেলগাম, আম্বালা, জবলপুর এবং শিলংয়ের জন্য মূলত এই নিয়োগ।

জানা গেছে এই নিয়োগের কাজ সেপ্টেম্বরের ২০ তারিখ অবধি চলবে। সূত্রের খবর, ভারতীয় সেনায় এই পদের জন্য ২.৫৮ লাখ আবেদনপত্র জমা পরেছে। তাদের মধ্যে এক লাখ উত্তর প্রদেশ ও উত্তরাখন্ড থেকে এসেছে বলেই জানা গেছে। এই পদের জন্য ২০১৯ সালের এপ্রিলে নোটিশ ইস্যু করা হয়েছিল।

লখনউতে কলোনেল আশুতোষ মেহতা সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, “প্রথম ধাপে প্রায় ৬০০ জন প্রার্থী এসেছেন। সেনাতে আসতে পেরে মেয়েরা খুবই আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত। এটা অবশ্যই একটি ভালো শুরু।”

২০২১ সালে তাঁদের নিইয়গ প্রক্রিয়া শুরু হবে। তার আগে নির্বাচিত প্রার্থীরা ৬১ সপ্তাহের একটি ট্রেনিং কোর্স প্রত্যেককে পেরিয়ে যেতে হবে। যেখানে সকলকেই কষ্টসাধ্য শারিরীক কসরতের অভ্যাস করবে। প্রথম ব্যাচের ১০০ জন মহিলার জন্য নির্বাচনী পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে। তাঁদের মিলিটারি পুলিশে নিয়োগ করা হবে।

মহিলা সেনারা ছাউনিগুলিতে ও আর্মি এস্টাব্লিসমেন্ট গুলিতে দায়িত্বপ্রাপ্ত হবেন। বর্তমানে সেনা ক্ষেত্রে মহিলারা শুধুমাত্র ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিকেল, লিগাল, সিগন্যাল এবং শিক্ষাক্ষেত্রেই কাজ করছেন।