ওয়াশিংটন:  মার্কিন সফরে গিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সোমবার রাতেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক সেরেছেন। প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার পর ইমরান খানের এটাই প্রথম মার্কিন সফর। শুধু তাই নয়, ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গেও তাঁর সাক্ষাৎ প্রথম। ফলে কখনই বিশ্বের অন্যতম তাবড় রাজনীতিবিদের সঙ্গে তাঁর বৈঠককে স্মরণীয় রাখতে চেয়েছিলেন ইমরান।

আর তাই প্রথম সাক্ষাতে উপহার হিসাবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতে তুলে দিলেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট আইজেনহাওয়ারের ছবি সম্বলিত একটি ক্রিকেট ব্যাট। যা কিনা অনেকেই বলছেন নজিরবিহীন।

তিন দিনের সফরে সোমবার আমেরিকাতে পৌঁছন ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বগ্রহণের পর এই প্রথম তিন দিনের ওয়াশিংটন সফরে গেলেন কিংবদন্তি ক্রিকেট তারকা থেকে রাজনীতিতে এসে তাক লাগিয়ে দেওয়া ইমরান খান। ব্যাট উপহার পাওয়ার পর ইমরান খানকে কিংবদন্তি ক্রীড়াবিদ ও জনপ্রিয় নেতা হিসেবে প্রশংসা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউসে বৈঠকে ট্রাম্প বলেন, একজন জনপ্রিয় ও কিংবদন্তি ক্রীড়াবিদকে আমন্ত্রণ জানাতে পেরে আমি সম্মানিত বোধ করছি। শুধু তাই নয়, এমন একটা ব্যাট উপহার হিসাবে তাঁকে দেওয়ার জন্যে খুশি হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

শুধু মার্কিন প্রেসিডেন্টই নয়, ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মার্কিন ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। এক টুইটে তিনি বলেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আজ হোয়াইট হাউসে এসেছেন, সত্যিই অসাধারণ। পোস্টে ইমরান খানের সঙ্গে তোলা তিনটি ছবিও শেয়ার করেন মার্কিন ফার্স্টলেডি। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আফগানিস্তান থেকে সরে আসতে পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে আমেরিকা। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর সোমবার প্রথমবারের মতো মার্কিন সফরে গিয়েছেন ইমরান খান।

হোয়াইট হাউসে করমর্দন করে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে স্বাগত জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তারা যখন বৈঠকে ঢুকছিলেন, তখন হোয়াইট হাউসের বাইরে জড়ো হওয়া পিটিআই সমর্থকদের প্রতি হাত নেড়ে শুভেচ্ছাও জানান এই দুই নেতা।