মেদিনীপুর: মহাত্মা গান্ধীর সার্ধশতবর্ষকে সামনে রেখে রাজ্য জুড়ে গান্ধী সংকল্প যাত্রার করছে বিজেপি৷ রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায় বিজেপির সংকল্প যাত্রায় দেখা গেল উল্টো জাতীয় পতাকা৷ যা নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে৷ জাতীয় পতাকার অবমাননা করা হয়েছে বলে সরব হয়েছে বিরোধীরা৷

অভিযোগ, গত রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায় সংকল্প যাত্রার আয়োজন করে বিজেপি৷ সেই যাত্রায় সামনের সারিতে ছিল বিজেপির জেলার নেতারা৷ বেলদা বাইপাস থেকে বেলদা বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত এই সংকল্প যাত্রা করা হয়৷ সেখানে বেশ কিছু ছোট্ট মেয়েদের ‘ভারতমাতা’ও ছোট্ট ছেলেকে গান্ধী সাজিয়ে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় জাতীয় পতাকা৷ তার মধ্যে একজন ভারতমাতার হাতে দেখা গেল উল্টো পতাকা৷ বিষয়টি বিরোধীদের নজরে আসতেই, জাতীয় পতাকার অবমাননায় সরব হয়েছেন তারা৷

মঞ্চে সামনে প্রকাশ্যে এক নাবালিকার হাতে উল্টো জাতীয় পতাকা ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক৷ যাকে আবার ভারতমাতা রূপে সাজানো হয়েছে৷ বিষয়টি বিরোধীদের নজরে আসতেই, জাতীয় পতাকার অবমাননায় সরব হয়েছেন তারা৷ বিজেপি নিজেদেরকে দেশপ্রেমিক বলে দাবি করেন, আর তাদেরই সংকল্প যাত্রায় উল্টো জাতীয় পতাকা৷ এ কেমন দেশপ্রেম !

স্থানীয় বিজেপি নেতাদের দাবি, বিষয়টি তাদের নজরে আসতেই, পতাকা ঠিক করে দেওয়া হয়েছে৷ একটা বাচ্চা মেয়ে ভুল করেছে, তা নিয়ে বিরোধীরা যেভাবে রাজনীতি করছে ,তা কাম্য নয়৷

অন্যদিকে বিজেপি’র এই গান্ধী সংকল্প যাত্রাকে ভালো চোখে দেখছেন না জেলার শাসক দল তৃনমূল। জানা গিয়েছে, বিজেপির এই সংকল্প যাত্রাকে কটাক্ষ করছে জেলা তৃনমূল নেতৃত্ব। বিজেপির এই সংকল্প যাত্রা নিয়ে, মালদহের তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার জানান, ‘যারা গান্ধীজীর খুনি, তাঁকে সম্মান জানাতে তাদের এই যাত্রা মানায় না’।