প্রদ্যুত দাস, জলপাইগুড়ি:  তলানিতে দেশের আর্থিক পরিস্থিতি। এই অবস্থায় সাধারণ বাজেট পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। যদিও বাজেটে সেই অর্থে দিশা দেখাতে পারলেন না কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। যদিও সামঞ্জস্য রেখে বাজেটে একগুচ্ছ ঘোষণা করেছেন। যার মধ্যে অন্যতম জেলা হাসপাতালগুলিকে মেডিক্যাল কলেজে উন্নত করা খুব গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত মোদী সরকারের।

বাজেটে শনিবার নির্মলা সীতারমণ পিপিপি অর্থাৎ সরকারি এবং বেসরকারি উদ্যোগে জেলা হাসপাতালগুলিকে মেডিক্যাল কলেজে উন্নত করার প্রস্তাব দেন। নির্মলা সীতারমণের এই উদ্যোগকেই তীব্র প্রতিবাদ জানালো ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন অর্থাৎ IMA।

অ্যাসোসিয়েশনের উত্তরবঙ্গের কোর্ডিনেটর ডাক্তার সুশান্ত রায় জানান, আমরা এই ধরনের প্রস্তাবের তীব্র বিরোধিতা করছি। এর মাধ্যমে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে কর্পোরেট সেক্টরের হাতে তুলে দেওয়ার চক্রান্ত হচ্ছে। এই রাজ্যে সরকারি হাসপাতালগুলিতে বিনামূল্যে চিকিৎসা চলছে। প্রতিটি হাসপাতালে সুন্দর সেট আপ রয়েছে। এর ফলে বিনামূলে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করেন সুশান্ত বাবু। তাঁর মতে, কেন্দ্রীয় সরকারের এহেন উদ্যোগের ফলে সাধারন মানুষের ভোগান্তি আরও বাড়বে। ফলে অবিলম্বে এই প্রস্তাব কেন্দ্রীয় সরকারের প্রত্যাহার করা উচিৎ বলে মনে করেন সুশান্ত রায়।

শনিবারের বাজেটে দেশের স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বিপুল বরাদ্দের ঘোষণা কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর। একইসঙ্গে বাজেটে গ্রামীণ স্বাস্থ্যক্ষেত্রের দিকেও নজর রাখা হয়েছে। জনঔষধি কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। এবার গ্রামীণ এলাকায় কেন্দ্রীয় উদ্যোগে জনঔষধি কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়াতে তৎপরতা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন নির্মলা সীতারমন। এক্ষেত্রে দেশের গ্রামীণ এলাকাগুলির উল্লেখ করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। গ্রামাঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্য পরিষেবায় আরও গতি আনতে কেন্দ্র বিশেষভাবে সচেষ্ট বলেও এদিন সওয়াল করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। এই প্রসঙ্গে নির্মলা বলেন, ‘২০২৪ সালের মধ্যে দেশের সব জেলায় কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্যোগে জনঔষধি কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে’৷

এরই পাশাপাশি জল জীবন মিশনের জন্য ৩.৬ লক্ষ কোটি, স্বচ্ছ ভারত মিশনের জন্য ১২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। শনিবার দ্বিতীয় মোদী সরকারের দ্বিতীয় আর্থিক বাজেট পেশ করেন নির্মলা সীতারমন। বাজেট পেশের শুরুতেই প্রয়াত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। জিএসটি- জন্য ফের একবার দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন নির্মলা।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।