প্রতীকি ছবি

কলকাতা:  এনআরএস-এ জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলনকে ইতিমধ্যেই সমর্থন করতে দেখা গিয়েছিল দিল্লির এইমসে৷ এবার এ রাজ্যের ডাক্তারদের আন্দোলনকে সমর্থন করতে এগিয়ে এল গোটা দেশের প্রায় সব রাজ্যের মেডিক্যাল কলেজগুলি। এদিকে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) ১৭ জুন সোমবার গোটা দেশের হাসপাতালগুলিতে ধর্মঘটের ডাক দিল। তবে জরুরি ও রুটিন পরিষেবা চালু থাকবে বলে জানিয়েছে ডাক্তারদের এই সংগঠন। বন্ধ রাখা হবে আউটডোর এবং অন্যান্য পরিষেবা বন্ধ।

শুধু বাংলা নয় এই আন্দোলনের ঢেউ আছডে পড়ল গোটা দেশেই।, শুক্রবারে কর্মবিরতিতে কার্যত সামিল হয়েছে গোটা দেশ। তাছাড়া উত্তরপ্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলঙ্গানা, মহারাষ্ট্র, কেরল, পঞ্জাব, বিহার, ত্রিপুরা, অসম-সহ সব রাজ্যের মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকদের নিরাপত্তার দাবিতে এদিন আন্দোলনে সামিল হতে দেখা যায়। ফলে এদিন চিকিৎসকরা গোটা দেশে কোথাও কাজ বন্ধ রেখে আবার কোথাও বা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ মিছিল করেছেন। ফলে এই সব হাসপাতালে পরিষেবা ব্যহত হয়৷

গতকালই দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট মেডিক্যাল সায়েন্সেস-এর চিকিৎসকরা হেলমেট পরে এবং মাথায় ব্যান্ডেজ বেঁধে প্রতীকী প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন তবে পরিষেবা সচল ছিল। তবে আগেই ঘোষণা করা হয় সেখানে শুক্রবার হাসপাতালের সমস্ত পরিষেবা বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি এইমস-এর রেসিডেন্ট ডক্টর‌্স অ্যাসোসিয়েশন গোটা দেশের সব মেডিক্যাল কলেজকেও এক দিনের এই প্রতীকী কর্মবিরতিতে সামিল হওয়ার আহ্বান জানায় ।

এদিন কর্মবিরতির জন্য এইমস-এর পরিষেবা রীতিমোত ব্যহত হয়। দিল্লির পাশাপাশি আন্দোলনের প্রভাব পড়েছে মহারাষ্ট্রেও। সেখানে এদিন মহারাষ্ট্র অ্যাসোসিয়েশন অব রেসিডেন্ট ডক্টরস এক দিনের কর্মবিরতি পালন করছে। বেশির ভাগ সরকারি হাসপাতালগুলির আউটডোর পরিষেবা বন্ধ ছিল।