মাদ্রিদ: হার্টের সমস্যায় এক বছরেরও বেশি সময় মাঠের বাইরে ছিলেন৷ শেষ পর্যন্ত সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন স্পেনের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক তথা গোলরক্ষক ইকর ক্যাসিয়াস৷ মঙ্গলবার টুইটারে তাঁর অবসরের কথা জানান ৩৯ বছর বয়সি স্প্যানিশ তারকা৷

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২০১০ বিশ্বকাপে ক্যাসিয়াসের হাত ধরে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয় স্পেন৷ ক্যাসিয়াসের হাত ধরেই প্রথমবার বিশ্বচ্যাম্পিয়নের স্বাদ পায় স্পেন৷ দেশকে বিশ্বকাপ দেওয়ার পাশাপাশি কেরিয়ারে অসংখ ট্রফি জিতেছেন এই স্প্যানিশ গোলারক্ষক৷ এছাড়াও তাঁর কেরিয়ারে দু’বার ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছেন ক্যাসিয়াস৷

রিয়াল মাদ্রিদের ৭০০টিরও বেশি ম্যাচ খেলা নিজের অবসর নিয়ে এদিন জানান, ‘আজ আমার ক্রীড়া জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং সবচেয়ে কঠিন দিন৷ বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে৷’ ক্যাসিয়াস ২০১৫ সালে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বিদায় নেওয়ার পর পর্তুগিজ ক্লাব পোর্তোতে যোগ দিয়েছিলেন৷ জুলাই মাসে পোর্তোর সঙ্গে তাঁর পাঁচ বছরের চুক্তি শেষ হয়৷ তবে গত বছরের মে মাসে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার পর থেকে মাঠে নামতে পারেননি৷

অবসর প্রসঙ্গে টুইটারে তিনি আরও লেখেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হ’ল আপনি যে পথটি ভ্রমণ করেছেন এবং যারা আপনার সঙ্গে ছিল তাদেরকে ধন্যবাদ জানাতে হবে৷ তবে আমি কোনও দ্বিধা ছাড়াই বলতে পারি আমি যে পথটি নিয়েছিলাম, তা আমার স্বপ্ন ছিল৷’

জাতীয় দলের হয়ে ১৭৭টি ম্যাচ খেলেছেন৷ ২০১০ বিশ্বকাপ ছাড়াও ২০০৮ এবং ২০১২ সালে স্পেনকে ইউরো জিতিয়েছেন ক্যাসিয়াস৷ তাঁর সময়টা হল স্প্যানিশ ফুটবলে স্বর্ণযুগ।

ক্লাবের হয়েও দারুণ সফল৷ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে তাঁর সময় পাঁচবার লা লিগা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ৷ এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন তিনবার৷ ক্লাবের তরফে এদিন এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘রিয়াল মাদ্রিদ এবং স্প্যানিশ ফুটবলের ইতিহাসের সেরা গোলরক্ষক৷ ৯ বছর বয়সে আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছিল। তারপর থেকে ২৫ বছর এই ক্লাবের জার্সিটা তার গায়ে ছিল৷ আমাদের সর্বকালের অন্যতম প্রতীকী অধিনায়কও৷’

ক্লাবের তরফে আরও জানানো হয়, ‘আজ আমাদের ১১৮ বছরের ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার অবসর নিলেন৷ একজন পেশাদার খেলোয়াড়, আমরা যাঁকে ভালোবাসি এবং শ্রদ্ধা করি৷ এমন একজন গোলরক্ষক যিনি রিয়াল মাদ্রিদের উত্তরাধিকারকে তাঁর কাজ এবং অনুকরণমূলক আচরণের সঙ্গে আরও বড় করে তুলেছেন।’

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা