বেহরুট:লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলনকারী হিজবুল্লাহ হুমকি দিয়েছে, যদি ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু হয় তাহলে ইসরায়েল ধ্বংস হবে৷ হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ জানিয়েছেন, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু হলে তখন ইহুদিবাদী ইসরাইল ধ্বংস হয়ে যাবে এবং অবসান ঘটবে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সামরিক বাহিনীর উপস্থিতির। কারণ তিনি সাফ বুঝিয়ে দেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে কোনও রকমের সামরিক আগ্রাসন হলে হিজবুল্লাহ নিরপেক্ষ থাকবে না।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহের বক্তব্য, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে যে কোনও ধরনের যুদ্ধ-পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করছি কারণ এমন যুদ্ধের ফলে এ অঞ্চলের কয়েকটি দেশ এবং এসব দেশের জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সম্ভাব্য যুদ্ধ মূলত পুরো মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিরোধকারী শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ। হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, সম্ভাব্য এই যুদ্ধে ইহুদিবাদী ইসরাইলের চির অবসান ঘটবে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে মার্কিন বাহিনীর উপস্থিতিরও অবসান হবে।

হাসান নাসরুল্লাহ জানান, ২০০৬ সালের যুদ্ধের সময় রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১৭০১ নম্বর প্রস্তাব অনুসারে ইসরাইলের সঙ্গে যে যুদ্ধবিরতি হয়েছিল লেবানন ও হিজবুল্লাহ তার প্রতি শ্রদ্ধা জানায়৷ কিন্তু ইসরাইল যদি লেবাননের উপরে হামলা চালায় তাহলেও উপযুক্ত জবাব পাবে।

হাসান নাসরুল্লাহ  তার ভাষণের মনে করান, নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের ব্যাপারে হিজবুল্লার প্রতিশ্রুতি রয়েছে এবং ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসানের জন্য হিজবুল্লাহ অঙ্গীকারাবদ্ধ।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও