মেলবোর্ন: করোনার জেরে পিছিয়ে যেতে পারে আসন্ন টি২০ বিশ্বকাপ। পরিবর্তে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর উইন্ডোয় খুলে যেতে পারে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে যাওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ। জল্পনা তেমনটাই। কিন্তু এই জল্পনা ঘিরেই আপত্তি তুলেছেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বজয়ী অধিনায়ক অ্যালান বর্ডার। কিংবদন্তির কথায়, গ্লোবাল টুর্নামেন্টের পরিবর্তে ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগকে কখনোই প্রাধান্য দেওয়া উচিত নয়।

টোকিও অলিম্পিক, ২০২০ ইউরো সহ বিশ্বজুড়ে যখন একের পর এক মেজর স্পোর্টস ইভেন্ট পিছিয়ে গিয়েছে নয়তো বাতিল হয়েছে, তখন আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা টি২০ ক্রিকেট বিশ্বকাপ ঘিরেও অনিশ্চয়তার বাতাবরণ। সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন মহল থেকে শোনা যাচ্ছে অক্টোবর-নভেম্বর উইন্ডো থেকে সরিয়ে নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজন করা হতে পারে ২০২২-এ। পরিবর্তে ওই উইন্ডোয় অন্তর্ভুক্তি ঘটতে পারে আইপিএলের।

স্থানীয় একটি রেডিও অনুষ্ঠানে এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ‘৮৭-র বিশ্বজয়ী অধিনায়ক বলেন, ‘এহেন সিদ্ধান্তে আমি খুশি নই একেবারেই। স্থানীয় প্রতিযোগীতার থেকে বিশ্বব্যাপী একটি টুর্নামেন্ট সবসময় বেশি প্রাধান্য পাওয়া উচিত। তাই আমার মতে টি২০ বিশ্বকাপ যদি চলতি বছর আয়োজন করা না যায় তাহলে আইপিএলে আয়োজন করাও উচিত নয়। এমনটা হলে আমি প্রশ্ন তুলব। এটা (আইপিএল) অর্থের অপচয় ছাড়া কিছুই নয়। নিশ্চিতভাবে টি২০ বিশ্বকাপকে সর্বাগ্রে প্রাধান্য দেওয়া প্রয়োজন।’

বর্ডারের মতে আইপিএল আয়োজনের জন্য টি২০ বিশ্বকাপের সূচি হেরফের করলে এর খুব খারাপ প্রভাব পড়বে বলে। তাঁর কথায়, এমনটা বাস্তবে হলে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ড প্রতিবাদ স্বরূপ তাদের ক্রিকেটারদের কোটিপতি লিগে অংশগ্রহণে আপত্তি জানাবে। টি২০ বিশ্বকাপের পরিবর্তে আইপিএল অনুষ্ঠিত হলে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে তাদের ক্রিকেটারদের আইপিএল খেলার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারির কথাও বলেছেন বর্ডার। একইসঙ্গে কোনটা ঠিক, কোনটাই বা ভুল তা বিচার করার দায়িত্বভার বর্ডার অনুরাগীদের উপরেই ছেড়ে দিয়েছেন।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।