মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের কাণ্ডে বড় মোড় নিয়েছে মাদক যোগ। গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তীর জামিনের আবেদনের শুনানি ছিল। সেই আবেদনের বিরোধিতা করছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। এনসিবির মতে ড্রাগ সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য রিয়া ও তার ভাই সৌভিক। হাই সোসাইটির ব্যক্তিত্ব এবং মাদক পাচারকারীদের সঙ্গে রিয়ার যোগাযোগ ছিল বলে জানিয়েছে এনসিবি। এছাড়াও সেখান থেকে মাদক কেনা এবং নিজের কাছে রাখার মত অভিযোগ রয়েছে রিয়ার বিরুদ্ধে।

এনসিবির তরফ থেকে অনিল সিং রিয়া ও সৌভিকের জামিনের আবেদন এর বিরোধিতা করেছেন। তাঁর দাবি মাদক লেনদেন এবং পাচারের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল রিয়ার। যা খুনের থেকেও বড় অপরাধ। তাঁর কথায়, “যাদের রোল মডেল মনে করা হয় তারা মাদক নেওয়ার বিষয়টাকে কোনো গুরুত্ব দিচ্ছে না। আমরা এই বিষয়টির গভীরে যাবো এবং ড্রাগ অ্যাবিউজে ইতি টানবো।”

অন্যদিকে রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী সতীশ মানশিন্দে বলেছেন, “রিয়া সুশান্তের অ্যাকাউন্ট দেখাশোনা করতেন না। সুশান্তের নিজস্ব একজন অ্যাকাউন্ট্যান্ট ছিলেন। আর তাই সুশান্তের জন্য মাদক কেনার বিষয়টি তৈরি হচ্ছে না। এই মামলায় একমাত্র সুশান্ত নিজে মাদক নিতেন। অন্য কেউ মাদক নিতে নেই বিষয়ে এনসিবির কাছে কোন প্রামাণ্য তথ্য নেই। রিয়া কোনো অবৈধ মাদক যে কিনেছিলেন এ বিষয়ে সত্যি কিছু বলার নেই। কিন্তু আজ সুশান্ত জীবিত থাকলে, ওকেও এনডিপিএ অ্যাক্টের ২০ নম্বর ধারায় গ্রেফতার করা হতো। তখন হয়তো ও রিহ্যাবে থাকার আবেদন করত এবং শাস্তি অনেকটাই কমে যেত। তাহলে রিয়া এবং সৌভিককে কেন ২৭এ নম্বর ধারায় শাস্তি দেওয়া হচ্ছে?”

প্রসঙ্গত সুশান্তের মৃত্যুর কারণ হিসেবে অনেকে বিষক্রিয়ার প্রসঙ্গ এনেছিলেন। AIIMS এর রিপোর্টে এখনো পর্যন্ত কোনো রকমের বিষক্রিয়ার ইঙ্গিত মেলেনি। সুশান্ত সিং রাজপুত মাদক নিতেন এই তথ্য এনসিবির হাতে এসেছে। এবং সেই মর্মে তাদের দাবি যে রিয়া সেই বিষয়টিকে প্রশ্রয় দিয়েছেন এবং গোপন করার চেষ্টা করেছেন। এই বিষয়টিও আইনত অপরাধ বলে জানিয়েছে এনসিবি।

হাইকোর্টের পেশ করা এফিডেভিট-এ তদন্তকারী সংস্থার পক্ষ থেকে এও বলা হয়েছে, ড্রাগ সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য রিয়া চক্রবর্তী। এবং হাই সোসাইটির ড্রাগ পাচারকারী এবং ব্যক্তিত্বদের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ রয়েছে। মাদক পাচারের সঙ্গে তার সরাসরি যোগাযোগ ছিল। ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ড এবং ক্যাশ টাকার মাধ্যমে মাদক কাণ্ডে লেনদেন করেছেন রিয়া।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।