স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ‘মন্ত্রিত্ব-মেয়র পদ ছাড়লেও শোভন তৃণমূল ছাড়বে না৷ তৃণমূল ছাড়লে বৈশাখীও ওকে ছেড়ে চলে যাবে’-শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ভবিষ্যত নিয়ে শুক্রবার এমনই মন্তব্য করলেন কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা তথা আইনজীবী অরুনাভ ঘোষ৷ শোভন-পত্নী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের মতো তিনিও কাননের এই হালের জন্য বৈশাখীকেই অনেকটা দায়ী করেছেন৷

চলতি সপ্তাহে মেয়র-মন্ত্রিত্ব দুটোই গিয়েছে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের৷ এই পুরো সপ্তাহ জুড়ে সংবাদমাধ্যমের স্পটলাইটে ছিলেন শোভন-রত্না-বৈশাখী৷ শোভন-বৈশাখীর ‘পরকীয়া’ নিয়ে নানান চর্চা চলেছে৷ সেই রেশ টেনেই অরুনাভ ঘোষ বলেন, ‘আমি বৈশাখীকে জানি৷ ও এর আগে একজন উকিল আর একজন সাংবাদিকের সংসার ভাঙার চেষ্টা করেছিল৷ যেভাবে শোভনের হয়েছে’৷

অরুনাভবাবু বলেন, ‘এটা পরিস্কার শোভন আবেগের বশে ইস্তফা দিয়েছে৷ ও যদি ইস্তফা না দিত তাহলে মমতা ওকে সরাতো না৷ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ভবিষ্যত নিয়ে তাঁর বক্তব্য, ও তৃণমূল ছাড়বে না৷ যদি তৃণমূল ছাড়ে তাহলে বৈশাখীই ওকে ছেড়ে পালাবে’৷

বৃহস্পতিবার বৈশাখীকে আক্রমণ করে রত্না বলেন, ও আগে ৪০০ টাকা দামের জামা পড়ত এখন ওর গায়ে লক্ষ লক্ষ টাকা গয়না কিভাবে এল? অরুণাভ ঘোষ এদিন রত্নাকে পাল্টা আক্রমণ করে বলেন, ‘রত্না আর ওর স্বামীর এত টাকা, এত গাড়ি কোথা এল-সেটা ও বলুক’৷