নয়াদিল্লি : বৃহস্পতিবার সন্ধ্যেয় নিজেরদের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি। বাংলায় প্রথম দফায় ২৮ টি আসন মিলিয়ে দেশে মোট ১৮২ টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে তারা। এ রাজ্যে প্রথম শ্রেনীতে থাকা প্রায় সবকটি আঞ্চলিক দলগুলির মধ্যে সবথেকে শেষে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করল বিজেপি। বাকি দলগুলির প্রার্থী তালিকা নিয়ে বিজেপির হুংকার ছিল, ” ওস্তাদের মার শেষ রাতে।”

কিন্তু প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর দেখা গেল গর্জনই সার, আসলে সব ভোঁভা। প্রার্থী তালিকায় তেমন কোন চমকই নেই বিজেপির। তবে চমক অন্য জায়গায়, বিজেপির প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন খোদ লাল কৃষ্ণ আদবানী!

আর সেই নিয়ে বিজেপিকে ইতিমধ্যেই এক হাত নিয়েছে কংগ্রেস। বিজেপির প্রথম দফার প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর কংগ্রেসের বক্তব্য, মোদী যদি আদবানীর মত বর্ষীয়ানদের সম্মান দিতে না পারেন তবে দেশকে সম্মান করবেন কিভাবে! গান্ধীনগর থেকে এবার অমিত শাহকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। যে আসন থেকে বরাবর দাঁড়িয়ে এসেছেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লাল কৃষ্ণ আদবানী। শুধু তাই নয়, এবার দাঁড়াবার জন্য আদবানীর জন্য কোন আসনই রাখেনি বিজেপি। যা আদবানীর এতো দিনের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে বেশ বড় রকমের প্রভাব ফেলল তো বটেই, ইঙ্গিতপূর্ণভাবে বোঝা যাচ্ছে ক্যারিয়ারের ইতি ঘটতে চলেছে তাঁর।

এই বিষয়েই কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদীপ সুরজেওয়ালা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের উদ্দেশ্যে টুইটে বলেছেন, নরেন্দ্র মোদি যদি লাল কৃষ্ণ আডবাণীর মত বর্ষীয়ান নেতাকেই শ্রদ্ধা করতে না পারেন, তাহলে তিনি কিভাবে জনগণের ইচ্ছার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন!

গুজরাতের ২৫ টি আসনের সাথে সাথেই গান্ধীনগরেও নির্বাচন হবে আগামী ২৩ এপ্রিল। সাত দফা ভোটের মধ্যে তৃতীয় দফায় গুজরাটে ভোট হবে। পুনরায় বারানসী কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দীতা করবেন নরেন্দ্র মোদী। রাহুল গান্ধীর কেন্দ্র অমিঠি থেকে বিজেপির হয়ে লড়বেন স্মৃতি ইরানি। ফলে বোঝাই যাচ্ছে লড়াইটা হবে হাড্ডাহাড্ডি। রাজনাথ সিং লড়বেন লখনউ থেকে। নীতিন গরকরি লড়ছেন নাগপুর থেকে। অরুণাচল (উত্তর) থেকে লড়বেন কিরেন রিজিজু।

কংগ্রেস বলছে, ” প্রথমে শ্রী লাল কৃষ্ণ আডবাণীকে ‘ মার্গদর্শক মণ্ডলি ‘ তে পাঠানো হল আর এখন তাঁর সাংসদীয় আসনেও থাবা বসানো হচ্ছে। যদি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লাল কৃষ্ণ আডবাণীকে শ্রদ্ধা জানাতে না পারেন, তাহলে কিভাবে মানুষের ইচ্ছাকে সম্মান করবেন?” সুরজেওয়ালার টুইটের শেষাংশ – ” বিজেপি ভাগাও, দেশ বাঁচাও। “