কলকাতা: কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বরাবরই সরব মুখ্যমন্ত্রী। স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালেও ক্ষোভ উগরে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মধ্যরাতে পতাকা উত্তোলনের সময় তিনি বলেন, বিপদের সংকেত পেয়ে সে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফোন করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

বুধবার রাতে হাজরা মোড়ে প্রাক স্বাধীনতা দিবসের আনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘ ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের আগে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফোন করে বলেছিলেন, আমাদের খুব ভয় লাগছে। আমরা বিপদে পড়লে তোমরা পাশে দাঁড়াবে তো। আমরা পাশে দাঁড়াতে পারিনি। দাঁড়িয়েছি, কিন্তু মানসিকভাবে। বিবেকের দংশন হয়। আবেগের দংশন হয়। কোথায় বসে আছি, সত্যি কথা বলতে পারি না!’

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজ যদি জিজ্ঞেস করি যে গত ৮-১০ দিন ধরে ওই তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কোথায়? আমাকে সিবিআই বা ইডি গ্রেফতার করে নেবে। আমি এখনও মনে করি যে সবার সঙ্গে কথা বলেই সমস্যার সমাধান সম্ভব।’

এদিন তিনি আরও বলেন, আর্টিকল ৩৭০ নিয়ে বেশি কথা বলতে চান না তিনি। তবে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরা কোথায় সেই খবর জানতে চান তিনি। বলেন,’বন্দুকের পাল্টা বন্দুক নিয়ে লড়াই করতে পারি না। আর কেউ বুঝুক না বুঝুক বাংলার মা-বোনেরা বুঝবেন। অত্যাচার চাই না, সন্ত্রাস চাই না। সকলে মিলে ভালো থাকতে চাই।’

অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপ নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন,’কাশ্মীরিরা আমাদের ভাই-বোন। বিলের প্রক্রিয়াগত বিষয় নিয়ে আপত্তি নেই। কিন্তু পদ্ধতির সঙ্গে সহমত নই। আমাদের দল কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা ভোট দিইনি। কারণ এটা রেকর্ড হয়ে যাবে। সাংবিধানিক, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া মানা হয়নি’। এদিনও একই কথা বলেছেন মমতা। তাঁর মতে, ৩৭০ অনুচ্ছেদ নিয়ে বিতর্ক হতেই পারে। কিন্তু যেভাবে অন্ধকারে রেখে তা প্রত্যাহার করা হল, সেটা ঠিক হয়নি।