হাওড়া: মানুষ আশীর্বাদ করলে উলুবেড়িয়ার জন্য অনেক কাজ করব। উলুবেড়িয়ায় এমনটাই দাবি করলেন কংগ্রেস প্রার্থী সোমা রানীশ্রী রায়৷ আজ মঙ্গলবার মনোনয়ন পত্র জমা দেন তিনি৷ সেখানেই সাংবাদিকদের সামনে তিনি এমনটাই জানান৷

তিনি বলেন, বন্যা প্রতিরোধ, গঙ্গার ভাঙন রোধের জন্য মাস্টার প্ল্যান, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ট্রমা সেন্টার স্থাপন, ফুল চাষ ও পান চাষে জোর দেওয়া হবে৷ ফুলেশ্বরে লেবেল ক্রসিয়ের উপর আন্ডারপাস বা ফুটব্রিজ স্থাপন, দামোদর রূপনারায়ণে বন্যা প্রতিরোধে মাস্টার প্ল্যান করা, জরি শিল্পকে যাতে আধুনিক মানের গড়ে তোলা যায় তার চেষ্টা করা হবে বলে জানান কংগ্রেসের এই প্রার্থী। তিনি আরও জানান, আগামিদিনে কুরিয়া ব্রিজ, ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রোথ হাব নিয়ে কাজ করতে চান।

সোমা রানীশ্রীর কাছে, লড়াই মানেই সেটা চ্যালেঞ্জের। লড়াই কঠিন বা সহজ বলে কিছু হয় না। গোটা দেশে বিজেপি যা করেছে এবং বাংলায় দিদি যা করেছে তাতে মানুষ ওদের প্রতি বীতশ্রদ্ধ।

কংগ্রেস প্রার্থী আরও বলেন, ‘‘কংগ্রেসের যে ইস্তেহার রয়েছে তা মানুষের কাছে আমরা তুলে ধরতে চাই। উলুবেড়িয়ায় ১ হাজার ৮২৯টি বুথ আছে। সব বুথেই আমরা কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোটের দাবি জানাচ্ছি। চারিদিকে যে ত্রাসের রাজত্ব দলবদ্ধভাবে চলছে তার প্রতিরোধ মানুষ করবে। সেই ভরসা মানুষের উপর আছে। কংগ্রেস একটি পরিবারের মতো। সবাই একসঙ্গে এখানে কাজ করছি। সকলেই আমরা আরও প্রচারে জোর দেব। আমাদের প্রচার ফলপ্রসূ করব। সফল করব। উলুবেড়িয়ায় ভোট লড়াইয়ের ময়দানে সকলকেই সমান প্রতিপক্ষ বলে মনে করছি। কাউকেই ছোট মনে করছি না।’’

অন্যদিকে, এদিনই হাওড়া সদর লোকসভা কেন্দ্রে মনোনয়নপত্র জমা দেন পূর্বাঞ্চল জনতা পার্টি (সেকুলার)-এর প্রার্থী গৌতম কুমার সাউ। পরে এক সাংবাদিক বৈঠকে দলের তরফে অভিজিৎ দাস বলেন, ‘‘আমরা জাতীয় দল হিসেবে সারা দেশের ৩৪৭টি আসনে প্রার্থী দিয়েছি। এরাজ্যেও জঙ্গিপুর, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতা, বারাকপুর সহ কয়েকটি লোকসভার আসনে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছি। ২১ এপ্রিল মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারে জোর দেওয়া হয়েছে।’’