স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: দুর্গাপুর বর্ধমান লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন দার্জিলিং-য়ের সাংসদ এবং কেন্দ্রের তথ্য প্রযুক্তি দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। এই ঘোষণার পরই বর্ধমান শহরে মিছিল করেন বিজেপির গতবারের সাংসদ।

আরও পড়ুন- সর্বমঙ্গলা মন্দিরে পুজো দিয়ে আলুওয়ালিয়া জানালেন তিনি বাঙালি

এই মিছিলে সাধারণ মানুষের ভিড়-কে কটাক্ষ করে তৃণমূল পক্ষ থেকে বলা হয় ওরা সাত হাজার লোক জড়ো করতে পারলে ধরে নেবো ওরা জিতে গেছে। বর্ধমান শহর জেলা সভাপতি খোকন দাস আরও বলেন, আগে বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভায় ৩০০ বুথে এজেন্ট দিয়ে দেখাক বিজেপি।

আরও পড়ুন- মিড ডে মিলের বর্জ্য বাঁচিয়ে চলছে চাষ, নজির খুদে পড়ুয়াদের

সোমবার সকালেই দিল্লী থেকে অণ্ডাল বিমানবন্দরে আসেন আলুওয়ালি। তাঁকে স্বাগত জানাতে অন্ডালে হাজির ছিলেন বিজোপির জেলা নেতৃত্ব। সেখান থেকে সকাল প্রায় সাড়ে এগারোটা নাগাদ তিনি এসে হাজির হন বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে পুজো দেন।

আরও পড়ুন- ক্ষমতায় এলে সরকারি চাকরির পরীক্ষা দেওয়া যাবে বিনামূল্যে: রাহুল গান্ধী

এরপর সেখান থেকে আলুওয়ালি চলে যান বর্ধমানের তিনকোণিয়ার শ্রী গুরুনানক গুরুদুয়ারায়। সেখানে প্রার্থণা সেরে আলুওয়ালি পৌঁছান বর্ধমান শহরের শুলিপুকুরে। সেখান থেকে প্রথমে কিছুটা হেঁটে প্রচার শুরু করলেও কর্মীদের বিশৃঙ্খল চাপে তিনি হঠাতই কর্মীদের থেকে বেরিয়ে এসে দৌড়াতে শুরু করেন। খানিকটা দৌড়ে যাবার পর ঝাড়খণ্ড থেকে আনা বিশেষ হুড খোলা জিপকে জিপে চড়ে তিনি মিছিল করেন টাউন হল পর্যন্ত। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে সাম্প্রতিককালে বিজেপির এতবড় মিছিল দেখেনি বর্ধমান শহর।

আরও পড়ুন- দলীয় পতাকা টাঙানো ঘিরে সংঘর্ষ বিজেপি-তৃণমূলের, বাইকে আগুন

যদিও ভিড়ের দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল প্রামাণিক জানিয়েছেন, তিনি মিছিল দেখেছেন। ভাল করে লক্ষ্য করেছেন। সাকুল্যে ৩০০ বেশির লোক হবেনা। বাইরের রাজ্য থেকেও লোক আনা হয়েছে। ২০১৯ এর ভোটে রাজ্য থেকেই মুছে যাবে বিজেপি।

আরও পড়ুন- আস্থা ভোটের পরেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভাটপাড়া পুরসভার বিভিন্ন এলাকা

প্রতীকী ছবি