বালুরঘাট: আইনের রক্ষক যদি কারও সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে না পারেন তাহলে নিজেদেরই সুরক্ষা বলয় গড়ে তোলা উচিত। মহিলা সুরক্ষার কথা বলতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ সরাসরি আইন হাতে তুলে নেওয়ার পরামর্শ দেন। এই ভাষাতেই রাজ্যের প্রসাশনের উপর আক্রমণ শানালেন লকেট চট্ট্যোপাধ্যায়।

দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের সিংফরকা গ্রামে মৃত যুবতীর বাড়িতে গিয়ে এই ভাষাতেই মহিলাদের আন্দোলন গড়ে তুলতে বললেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। অভিযোগ এই গ্রামেরই মেয়ে জবা রায়কে প্রেমের ফাঁদে ফাঁসিয়ে ধর্ষণ ও খুন করে পিন্টু সরকার ওরফে মাজিদুর রহমান নামের এক যুবক। মেয়েটি অন্তঃসত্বা হয়ে পড়ায় পিন্টু সরকার গত ৬ সেপ্টেম্বর ফোনে বাড়ি থেকে তাঁকে ডেকে নিয়ে গিয়ে যুবতীকে খুন করে বলে মৃতার পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে।

পরদিন সকালে জাহাঙ্গীরপুর এলাকায় নদীর ধার থেকে গলাকাটা অবস্থায় জবার মৃতদেহ উদ্ধারের হলে এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলেও স্থানীয়রা তার ফাঁসির দাবী তোলেন। শুক্রবার মৃতার পরিবারের সাথে দেখা করতে যান বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রী সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।

এদিন তিনি পরিবারের লোকেদের সহমর্মিতা জানানোর পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে সমস্ত রকমের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। মৃতের বাড়ির উঠোনে দাঁড়িতে লকেট চট্টোপাধ্যায় জানান যে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী নিজে একজন মহিলা হলেও ভোট রাজনীতির স্বার্থে মা বোনেদের সম্মান রক্ষা করতে পারছেন না। অবিলম্বে বাংলায় এনআরসি’র দরকার। এনআরসি চালু হলেই এই সব ধর্ষক খুনি যারা বাংলাদেশ থেকে এসে এখানে আস্তানা গেড়েছে। তাদের বিতাড়িত করা যাবে।

কিন্তু কন্যাশ্রী সবুজসাথীর কথা বললেও ভোটের স্বার্থে মুখ্যমন্ত্রী এনআরসির বিরোধিতা করছেন। আর কোন মেয়ে যাতে ধর্ষণ ও খুনের শিকার না হয় তার জন্য খোদ মহিলাদেরই তৈরী থাকতে হবে। পুলিশ প্রশাসন মেয়েদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ প্রমাণিত হয়েছে। সুতরাং আইন নিজে হাতে তুলে নেওয়ার কথা বলেন মহিলা মোর্চার এই নেত্রী।

হুগলীর বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় তাঁর বক্তব্যে জানান যে, বাংলার পুলিশ সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হলে আইন নিজের হতে তুলে নেবেন। কারণ আইনের রক্ষক যদি কারও সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে না পারে তাহলে নিজেদেরই সুরক্ষা বলয় গড়ে তোলা উচিত। এদিন তিনি জোরদার আন্দোলনে নামার জন্য এলাকার সকল মহিলাকে উদ্বুদ্ধ করেন। এমন আন্দোলন যাতে পুলিশ বাধ্য হয় এই সমস্ত খুনি ধর্ষকদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে।