রাঁচি: বিশেষ তল্লাশি অভিযানে ছিলেন তাঁরা৷ মঙ্গলবার সেই অভিযান চলাকালীনই ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল ঝাড়খণ্ডের সরাইকেল্লার কুচাই এলাকা৷ ভোর রাতে এই বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১১ জন জওয়ান গুরুতর আহত হয়েছেন৷ এই ১১ জনের মধ্যে ৮ জন ২০৯ কোবরা ব্যাটেলিয়ানের সদস্য ও বাকি ৩জন ঝাড়খণ্ড পুলিশ কর্মী বলে জানা গিয়েছে৷

মাওবাদীরা এই বিস্ফোরক মাটির তলায় পুঁতে রেখেছিল বলে প্রাথমিক অনুমান৷ ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত আহত জওয়ানদের সরিয়ে ফেলা হয়৷ সেনা বিমানে করে রাঁচি নিয়ে আসা হয় তাঁদের৷ ৪.৪৩ মিনিটে এই বিস্ফোরণ ঘটে৷ রাঁচির সেনা হাসপাতালে আহতদের ভরতি করা হয় ৬.৫২ মিনিটে৷ সি/১৯৬ বিএন সিআরপিএফ জওয়ানরা উদ্ধার কাজে হাত লাগান৷

এর আগে, অমিত শাহের নির্বাচনী প্রচারের ঠিক আগে সরাইকেলা জেলার খারসাওয়ান এলাকায় বিজেপি পার্টি অফিসে বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা৷ রাতেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের জনসভা করার কথা ছিল৷ কিন্তু এই ঘটনা নিরাপত্তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন তুলে দেয়৷ গভীর রাতে বিজেপির দলীয় দফতরে কৌটো বোমা নিয়ে হামলা চালায় মাওবাদীরা৷ এই এলাকা খুন্তি লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত, চলতি নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অর্জুন মুণ্ডা৷ এই খারসওয়ান বিজেপি পার্টি অফিসেই অনুষ্ঠান করার কথা ছিল তাঁদের৷

সেই সপ্তাহেই খুন্তি, কোডেরমা ও রাঁচিতে জনসভা করার কথা ছিল অমিত শাহের৷ ঝাড়খণ্ডের ১৪ লোকসভা কেন্দ্রের অন্যতম এই খুন্তি৷ উপজাতি অধ্যুষিত এই কেন্দ্র মাওবাদী আতংকেই জীবন কাটায়৷ ৬ই মে এই লোকসভা আসনে ভোট হয়৷

তার আগে, মাওবাদী হামলার ভয়াবহতায় কেঁপে ওঠে মহারাষ্ট্র৷ পুলিশের গাড়ি উড়িয়ে দেয় মাওবাদীরা৷ ১৫ জন কমান্ডো শহিদ হন৷ বুধবার মহারাষ্ট্রের গড়চিরৌলিতে কুরখেদা করচি রোডের ওপর জাম্বুরখেদা গ্রামর কাছে হামলা চলে৷ পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা৷ তার পরেই শুরু হয় গুলির লড়াই৷

১৫ জন কমান্ডো ও একজন চালকের মৃত্যু হয়৷ সি-৬০ কমান্ডো ব্যাটেলিয়ানের ওপর হামলা চলে৷ এদিকে, গভীর রাতে রাস্তা নির্মাণের ৫০টি গাড়িতে আগুন লাগায় মাওবাদীরা৷ মহারাষ্ট্রের গড়চিরৌলিতে গভীর রাতে ঘটনাটি ঘটে৷ রাস্তা তৈরি মেশিনের সঙ্গেই পুড়িয়ে ফেলা হয় বেশ কিছু গাড়ি৷ গড়চিরৌলির কুরখেদা তালুকের দানাপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে৷