মুম্বই: আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ছ’ বছর আগে অবসর নিলেও তিনি এখনও ফ্যানেদের চোখের মণি৷ বাইশ গজের বাইরেও সমান জনপ্রিয় সচিন রমেশ তেন্ডুলকর৷ সুতরাং লিটল মাস্টারকে নিয়ে সামান্য টুইটও ট্রোলড হয়৷

বাইশ গজকে বিদায় জানালেও ক্রিকেটার তৈরির কারখানায় ভবিষ্যতের সচিন তৈরিতে হাত লাগিয়েছেন৷ মিডলসেক্সের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তেন্ডুলকর-মিডলসেক্স গ্লোবাল অ্যাকাডেমি খুলেছেন লিটল মাস্টার৷ ভারতে এই অ্যাকাডেমির শাখা রয়েছে নবি মুম্বইয়ে৷ যেখানে বোলিং করতে দেখা গিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শততম সেঞ্চুরির মালিককে৷

অ্যাকাডেমির নেটে লেগ-স্পিন করতে গিয়ে নো-বল করেন সচিন৷ ভিডিওতে সেই নো-বলের বিষয়টি বারবার দেখা গিয়েছে৷ মজা করে সেই ছবির সঙ্গে প্রাক্তন ক্যারিবিয়ান আম্পায়ারে স্টিভ বাকনারের নো-বল দেখানো ছবি জুড়ে আইসিসি-র অফিসিয়াল টুইটারে পেজে পোস্ট করা হয়৷ যাতে মজা করে লেখা হয়…”Watch your front foot, @sachin_rt ??”

লিটল মাস্টারকে নিয়ে আইসিসি-র এই টুইট ট্রোলড হয়৷ কিন্তু ২৪ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারে বহুবার ভুল আম্পায়ারিংয়ের শিকার হয়েছেন মাস্টার ব্লাস্টার৷ তাই আইসিসি-র এই টুইটের উত্তরে সচিন লেখেন, “At least this time I am bowling and not batting ?? .. umpire’s decision is always the final decision. ???.”

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একগুচ্ছ রেকর্ডের মালিক সচিনকে বলা হয় ক্রিকেটঈশ্বর৷ স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের সঙ্গে তুলনা কে মুম্বইকরকে বলা আধুনিক ক্রিকেটের ‘ডন’৷ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৩৪,৩৫৭ রান রয়েছে সচিনের ঝুলিতে৷ মাত্র ১৬ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া এই মারাঠির ঝুলিতে রয়েছে ১৫,৯২১ টেস্ট রান এবং ওয়ান ডে ক্রিকেটে ১৮,৪২৬ রান৷ ক্রিকেটবিশ্বের তিনিই একমাত্র ক্রিকেটার যাঁর ঝুলিতে রয়েছে ১০০টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি৷ বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ২০০টি টেস্ট খেলার বিরল নজির রয়েছে শুধু লিটল মাস্টারের৷ ওয়ান ডে ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির মালিকও তিনি৷