দুবাই: এবার শুধু বর্ষসেরা ক্রিকেটার নয়, মাসের সেরা খেলোয়াড়কেও পুরস্কৃত করবে আইসিসি৷ বুধবার বিশ্বক্রিকেট সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থার তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে৷ সদ্য অস্ট্রেলিয়া সফরে পারফর্ম করা ঋষভ পন্ত ও ওয়াশিংটন সুন্দর-সহ ভারতীয় দলের পাঁচ ক্রিকেটার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন৷

ফ্যানেদের ভোটে তিন ফর্ম্যাটে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলা মাসের সেরা ক্রিকেটারকে বেছে নেবে আইসিসি৷ পুরুষদের পাশাপাশি মহিলা ক্রিকেটারদেরও এই পুরস্কারে সম্মানীত করা হবে৷ এদিন আইসিসি এক বিবৃতিতে জানায়, ‘স্বাধীনভাবে গড়া আইসিসি ভোটিং অ্যাকাডেমিতে রয়েছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার, ব্রডকাস্টার এবং সাংবাদিক৷ এই টিম ফ্যানেদের ভোটের ভিত্তিতে ICC Men’s Player of the Month and ICC Women’s Player of the Month বেছে নেওয়া হবে৷’

২০২১ থেকে শুরু হচ্ছে এই পুরস্কার৷ ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ক্রিকেটার জানুয়ারি মাসের সেরা পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে৷ সদ্য অস্ট্রেলিয়া সফরে দারুণ পারফর্ম করা পাঁচ ক্রিকেটার মনোনীত হয়েছেন৷ এঁরা হলেন টিম ইন্ডিয়ার ডানহাতি পেসার মহম্মদ সিরাজ, অফ-স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর, ব্রিসবেনে টেস্ট অভিষেক হওয়া বাঁ-হাতি পেসার টি নটরাজন, উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্ত এবং অফ-স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন৷ এই পাঁচ ক্রিকেটারই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চার টেস্টের সিরিজে পারফর্ম করেছেন৷

এছাড়াও জানুয়ারি মাসের সেরা পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন আফগানিস্তানের রহমানুল্লাহ গারবেজ, ইংল্যান্ড টেস্ট অধিনায়ক জো রুট, অজি ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ, দক্ষিণ আফ্রিকার মারিজানে কপ্প ও নাদিনে ডে ক্লার্ক এবং পাকিস্তানের নিদা দার৷ আইসিসি জেনারেল ম্যানেজার অফ ক্রিকেট জিওফ অলারডিস জানিয়েছেন, ‘আইসিসি মাসের সেরা খেলোয়াড় ফ্যানেদের সঙ্গে যোগসুত্রের দারুণ সুযোগ৷ ফ্যানেরা তাদের প্রিয় খেলোয়াড়দের সঙ্গে সারা বছর যুক্ত থাকতে পারবে৷ এতে পুরুষ ও মহিলা ক্রিকেটারদের মাঠে সারা বছরের পারফরম্যান্স সম্পর্কে জানা যাবে৷’

তিন ফর্ম্যাটে প্রতি মাসের প্রথম থেকে শেষ দিন পর্যন্ত পারফর্ম্যান্সের ভিত্তিতে বেছে নেওয়া হবে৷ মনোনীত ক্রিকেটাররা স্বাধীন আইসিসি ভোটিং অ্যাকাডেমি ও ফ্যানেদের ভোট পেয়ে সেরা নির্বাচিত হবেন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।