স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ডেঙ্গু নিয়ে আলোচনার দাবিতে মঙ্গলবার উত্তাল হল বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশন। মুলতবি প্রস্তাব আনতে বাধা দেওয়া হয়েছে, এই অভিযোগ তুলে একসঙ্গে ওয়াকআউট করল বাম-কংগ্রেস। বিরোধীদের এই বিক্ষোভকে ভালভাবে নেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

গত সপ্তাহেই সরকারপক্ষের তরফে স্বীকার করা হয়েছিল ইতিমধ্যেই রাজ্যের ২৩ জন ডেঙ্গি আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে বিধানসভা শুরুর আগেই বিরোধী দুই দল কংগ্রেস এবং বামেরা দাবি করেছিল ডেঙ্গু নিয়ে আলোচনা করতে হবে। কিন্তু বিরোধীদের আনা প্রস্তাব রাজ্য সরকার গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ। বরং সরকারের পক্ষ থেকে পাল্টা ডেঙ্গু নিয়ে প্রস্তাব আনা হয়। এরপরই অধিবেশন বয়কট করে বিরোধীরা।

এদিন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী জানান, এবছর রাজ্যে ৪৪ হাজার মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলেও এখনও পর্যন্ত 27 জনের মৃত্যু হয়েছে। গত বছর এই মৃতের সংখ্যাটা ৮৬ ছিল। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ডেঙ্গু দমন করতে রাজ্য সরকার সবরকমভাবে চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, “ডেঙ্গু মোকাবিলায় ৪৭৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে , চার হাজার চিকিৎসক ও ৫১ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী কাজ করছেন।” এরপরই বিরোধীদের আক্রমণ করে তিনি বলেন, “বিরোধীরা এমন করছে যাতে মনে হচ্ছে রাজ্য সরকার ডেঙ্গুর মশা আমদানি করছে। যদি আমদানি করতে পারতাম তাহলে বিরোধীদের কামড়াতে বলতাম। “

গত কয়েক বছর ধরেই ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে রাজ্যবাসীকে সচেতন করার চেষ্টা করছে রাজ্য় সরকার। কিন্তু তা সত্ত্বেও আশানুরূপ ফল পাচ্ছে না মমতার সরকার। চলতি বছরে রাজ্যে ডেঙ্গু মোকাবিলায় সক্রিয় রাজ্য সরকার।

কিন্তু বিরোধীরা সরকারের কাজে খুশি নয়। বিধানসভায় রাজ্যের ডেঙ্গুর সমস্যা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছে তারা। আর এতেই চটেছেন মুখ্যমন্ত্রী।