লন্ডন: প্রাথমিক দল বিবেচিত হননি৷ তা সত্ত্বেও পাকিস্তানের ১৫ জনের চূড়ান্ত বিশ্বকাপ দলে ঢুকে পড়েছেন বাঁ-হাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজ৷ বিশ্বকাপ দলে জয়াগা পেয়েই লক্ষ্য স্থির করে ফেলেছেন তিনি৷ বিশ্বকাপের ট্রফি নিয়ে দেশে ফেরা যদি তাঁর দলগত স্বপ্ন হয়, তবে ব্যক্তিগত লক্ষ্য হল কোচ মিকি আর্থারকে ভুল প্রমাণিত করা৷

আরও পড়ুন: স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের ইতিবাচক প্রস্তুতি শ্রীলঙ্কার

পাকিস্তানের হয়ে ২৭টি টেস্ট, ৭৯টি ওয়ান ডে ও ২৭টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে যথাক্রমে ৮৩, ১০২ ও ২৮টি উইকেট নিয়েছেন ৩৩ বছর বয়সি রিয়াজ৷ দেশের জার্সিতে শেষবার ওয়ান ডে খেলেছেন ভারতের বিরুদ্ধে ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির গ্রুপ ম্যাচে৷ শেষ আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেছেন তারও আগে৷ অর্থাৎ দু’বছর হয়ে গেল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সাদা বলের ক্রিকেট খেলেননি৷

আরও পড়ুন: সমর্থকদের পছন্দ নয় ইংল্যান্ডের নতুন বিশ্বকাপ জার্সি

শুধু সীমিত ওভারের ক্রিকেটেই নয়, বরং বেশ কিছুদিন হয়ে গেল জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন রিয়াজ৷ শেষবার তিনি পাকিস্তানের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন গত বছর অক্টোবরে৷ দুবাইয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্টের পর থেকে আর জাতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পাননি তিনি৷ হঠাৎ করে বিশ্বকাপ দলে ঢুকে পড়ার পর রিয়াজ মনে করিয়ে দিলেন তাঁর সম্পর্কে কোচ আর্থার একদা কী ধারণা পোষণ করেছিলেন৷

আরও পড়ুন: ভারতের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচেই নিজেদের যাচাই করতে চান টেলর

গত বছর এপ্রিলে আর্থার রিয়াজের কাজের নীতি নিয়েই প্রশ্ন তুলেছিলেন৷ পাক কোচ স্পষ্ট জানিয়েছিলেন যে, শেষ ২ বছরে রিয়াজ কোনও ম্যাচ জেতাননি পাকিস্তানকে৷ সেই প্রসঙ্গ টেনে রিয়াজ বলেন, ‘বলে বোঝাতে পারব না কোচের এমন মন্তব্যে কতটা যন্ত্রণা পেয়েছিলাম৷ তবে আমি অতীতে বাঁচতে রাজি নই৷ সেই ঘটনা এখন অতীত৷ এখন আমাদের লক্ষ্য হল বিশ্বকাপে ভালো ক্রিকেট খেলা৷ কোচের কাজ হল ক্রিকেটারদের কাছ থেক সেরাটা বার করে আনা৷ কোচ সেই রকম ক্রিকেটারদের দলে দেখতে চাইবেন, যাঁরা তাকে ম্যাচ জেতাতে পারবে৷ আমার লক্ষ্য হল দলে সুযোগ করে নেওয়া এবং সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে কোচকে ভুল প্রমাণিত করা৷’