প্রতীতি ঘোষ, ব্যারাকপুর: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘মমতা’ থেকে তিনি যে বঞ্চিত হচ্ছেন, প্রকাশ্য মঞ্চে সে কথাই বললেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।” উত্তর ২৪ পরগনার বরানগরে প্রতিবন্ধীদের সরঞ্জাম প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে রবিবার সেকথাই বললেন রাজ্যপাল।

এদিন তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মমতা আমার ও কিছু তো পাওয়া উচিত, আমাকে নিয়ে কোন সমস্যা থাকলে সেটা আমাকে বলুন উনি। ” উত্তর ২৪ পরগনার বরানগরে রাষ্ট্রীয় গতিশীল দিব্যাঙ্গণ সংস্থার চতুর্থ বার্ষিক অনুষ্ঠানে দিব্যাঙ্গদের সরঞ্জাম প্রদান করতে এসে একথা বলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

স্বস্ত্রীক রাজ্যপাল এদিন বরানগরের জাতীয় গতিশীল দিব্যাঙ্গন সংস্থার ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ছিলেন। এদিন তার একটি ট্যুইট সম্পর্কে সাংসদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের বাংলা ভাষা ব্যবহার করার কথা বলা নিয়ে তিনি হিন্দি ভাষার পক্ষে সওয়াল করে তিনি বলেন, “ভারতের রাষ্ট্রীয় ভাষা হিন্দি, তাই সকলের উচিত ইংরাজীর পাশাপাশি হিন্দি ভাষা শেখা।”

এদিন তিনি দিব্যাঙ্গদের বেশ কয়েকজনকে নিজে হাতে প্রতিবন্ধী সরঞ্জাম প্রদান করেন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর এদিন সাংবাদিকদের বলেন, “যেভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ঘটনায় আচর্যদের ভূমিকাকে অগ্রাহ্য করা হচ্ছে তা অনভিপ্রেত।” রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর ছাড়াও রাষ্ট্রিয় গতিশীল দিব্যাঙ্গণ সংস্থার এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ঠ সঙ্গীত শিল্পী ঊষা উথ্থুপ।

রাজ্যপাল ঊষা দেবীর প্রশংসা করে বলেন, “ঊষা দেবীর প্রতিভা অনুসারে তাকে পদ্মশ্রী সন্মান দেওয়া হয়েছে ঠিকই। কিন্তু আমি মনে করি উনার আরো উচ্চ সন্মান পাওয়া উচিত।”