ওয়েলিংটন: টি-২০ সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ করে এবং তারপর ওয়ান-ডে সিরিজে নিজেরা হোয়াইটওয়াশ হয়ে কিউয়ির দেশে ভারতীয় দলের সামনে এবার পাঁচদিনের ক্রিকেটের চ্যালেঞ্জ। আগামী শুক্রবার ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে শুরু হচ্ছে দু’ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। তার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপকে আইসিসি’র সেরা টুর্নামেন্ট হিসেবে বেছে নিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

ভারত অধিনায়কের কথায়, ‘ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ এই মুহূর্তে সবচেয়ে উপরে। আইসিসি’র অন্যান্য টুর্নামেটগুলো আমার কাছে এর পরে আসবে। ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ আমার মতে সবচেয়ে বৃহত্তম ইভেন্ট এবং প্রত্যেক দলই চাইবে লর্ডসে ফাইনাল খেলতে। আমরাও ব্যতিক্রম নই।’

প্রসঙ্গক্রমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়ার্কলোডের বিষয়টি উত্থাপিত হয় সাংবাদিক সম্মেলনে। ২০২১ দেশের মাটিতে ওয়ার্ল্ড টি-২০’র পর কী কোন একটা ফর্ম্যাটকে আপনার বিদায় জানানো উচিৎ? প্রশ্নের উত্তরে বিরাটের সাফ কথা, আগামী তিন বছরের সবক’টি ফর্ম্যাটে কঠিন সূচীর জন্য নিজেকে তৈরি রাখছেন তিনি। যার মধ্যে টি-২০ বিশ্বকাপ ও ৫০ ওভারের বিশ্বকাপকেও রাখছেন কোহলি। অধিনায়কের কথায়, ‘আগামী তিন বছর কঠিন শিডিউলের কথা মাথায় রেখে আমি নিজেকে তৈরি রাখছি।’

এ প্রসঙ্গে সংযোজন করে কোহলি জানিয়েছেন, ‘যখন বয়স ৩৪-৩৫ হয়ে যাবে, শরীর আর সাই দেবে না। তখন অন্য কথা ভাববেন তিনি। প্রথম টেস্ট শুরু হতে হাতে ৪৮ ঘন্টারও কম সময় হাতে। এমন সময় বুধবার প্র্যাকটিস সেশনেরও ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন কোহলি। ক্যাপশন হিসেবে লেখেন, ‘মাঠে দারুণ একটা সেশন।’

রঞ্জি ট্রফিতে খেলার সময় গোড়ালিতে চোট পাওয়া ইশান্ত চোট সারিয়ে যোগ দিয়েছেন দলের সঙ্গে। অভিজ্ঞ পেসারকে নিয়ে কোহলি জানিয়েছেন, ‘ও একদম স্বাভাবিক আছে। চোটের আগে যেমন ছন্দে বোলিং করছিল, এখনও দেখে তেমনই মনে হচ্ছে। নিউজিল্যান্ডে এর আগে দু’বার ও টেস্ট সিরিজে খেলেছে তাই নিঃসন্দেহে ওর অভিজ্ঞতা সম্পদ হয়ে উঠবে। নেট সেশনে সঠিক জায়গায় গতিতে বল রাখছে ও। দেখে ভালোলাগছে।’

অন্যদিকে শুক্রবার বেসিন রিজার্ভে একাদশে উইকেটরক্ষক হিসেবে শুরু করছেন ঋদ্ধিমান সাহাই। অন্তত বুধবারের প্র্যাকটিস সেশন দেখে সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট।