নয়াদিল্লি: তৃণমূল কংগ্রেসে ভাঙন ধরাতে তাঁর বিজেপিতে যোগদান৷ ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের ট্রেন্ড দেখে এখন মুখে শুধুই চওড়া হাসি বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের৷ অবশেষে স্বীকার করেই নিলেন, তাঁর বিজেপিতে আসা স্বার্থক হয়েছে৷

এবারের লোকসভায় বাংলায় উঠেছে বিজেপি ঝড়৷ ২০১৪ সালে ২ টি আসন থেকে পাঁচ বছর পর তৃণমূলকে প্রায় সমানে সমানে টেক্কা দিচ্ছে ভারতীয় জনতা পার্টি৷ লোকসভা ভোটের আগে বহু তৃণমূল কর্মী বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের হাত ধরে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছে৷ সেই জায়গা থেকে মুকুল রায়ের দিকে প্রশ্ন উঠেছে তৃণমূলে ভাঙন ধরাতেই কি তাঁর বিজেপিতে যোগদান?

সেই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেন, ‘‘আমি তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসেছি ধস নামানোর জন্যই৷ তৃণমূল কংগ্রেস দলটিকে বাংলা থেকে তুলে দিতে হবে৷ বাংলার গণতান্ত্রিক পরিবেশ নষ্ট করে দিচ্ছে তৃণমূল৷ সেই পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে তৃণমূলকে বাংলা থেকে মুছে ফেলতে হবে৷’’

পঞ্চায়েত ভোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘আমরা বুকে অনেক যন্ত্রণা নিয়ে আছি৷ কারণ পঞ্চায়েত ভোটের সময় আমাদের ৮৪জন কর্মীর মৃত্যু হয়েছে৷ ৩৪ শতাংশ আসনে আমাদের প্রার্থী দিতে দেওয়া হয়নি৷ ভোটের দিন ও গণনার দিন লুট হয়েছে৷ জেতার পর আমাদের প্রার্থীদের বাইরে থাকতে হয়েছে৷ তাই তৃণমূল বলে কোনও দল পশ্চিমবঙ্গে থাকবে না৷’’

তাঁর কথায়, ‘‘তৃণমূলের শেষের শুরু হয়েছে৷ এই রাজনৈতিক দলটির কোনও অস্তিত্ব থাকবে না৷ কংগ্রেস বা সিপিএমের কর্মীরা তৃণমূলের হাতে মার খেতে খেতে দেখেছে যে তাদের বাঁচাতে পারে একমাত্র বিজেপি৷ এবার বিজেপি জিতলে বাংলায় অনেক উন্নয়ন হবে৷’’