নয়াদিল্লি: ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’৷ সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ বা ক্ষমা চাইতে হলেও এখনও এটা কংগ্রেসের স্লোগান৷ পিছু হঠার কোনও প্রশ্নই নেই৷ পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷

আরও পড়ুন: মাসুদকে ছেড়ে সন্ত্রাসের কাছে মাথা নত করেছিল বিজেপি: রাহুল

সুপ্রিম কোর্টে রায় নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ ওঠে। সম্প্রতি রাফায়েল নথি নিয়ে একটি রায়ে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল, ‘চুরি হওয়া’ রাফায়েল নথি বিচার প্রক্রিয়ায় গ্রাহ্য করা হবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল জানান, ‘সুপ্রিম কোর্টও স্পষ্ট করেন চৌকিদার চোর’। রাহুলের মন্তব্য আদালত অবমাননার সামিল বলে অভিযোগ করে বিজেপি। সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন বিজেপি সাংসদ মিনাক্ষী লেখি।

এরপর রাহুলের মন্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের নোটিশে দুঃখ প্রকাশ করেন রাহুল। কিন্তু তাঁর সাফাই, ভোটের উত্তপ্ত প্রচারের মুহূর্তে এ ধরনের মন্তব্য করে ফেলেন তিনি। যার জন্য দুঃখিত বলে দাবি করেছেন। যদিও, রাহুলের নতি স্বীকারে মন গলেনি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের। হলফনামা দিয়ে তাঁর মন্তব্যের ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। সেই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার হলফনামা জমা দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। জানিয়ে দিলেন আদামী ৬ই মে সুপ্রিম কোর্টে অতিরিক্তি হলফনামা জমা দিয়ে ক্ষমা চাইবেন তিনি৷

ফাইল ছবি

শনিবার, কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘‘সুপ্রিম কোর্টের ওপরে নিজের একটি মন্তব্য চাপিয়ে দিয়েছিলাম। তার জন্য আমি ক্ষমা চেয়েছি। কিন্তু মোদীজি বা বিজেপির কাছে কোনও ক্ষমা প্রার্থনা করিনি। ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’-ই আমাদের স্লোগান।’’

আরও পড়ুন: প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ রাহুল, ক্ষোভে আমেঠির গ্রাম

দিল্লির মসনদ থেকে মোদী হঠাতে রাফায়েল দুর্নীতিতে হাতিয়ার করেছে কংগ্রেস৷ প্রচার থেকে সর্বত্র, সরব হাত শিবিরের প্রধান রাহুল গান্ধী৷ সেই রাফায়েল ইস্যুতেই বিতর্কিত মন্তব্য করে আদালতের কোপে তিনি৷ বিষয়টিকে পুঁজি করেছে বিজেপি৷ তাই গলা চড়িয়েছে হাত শিবিরও৷ সুপ্রিম কোর্টের কাছে মাথা নোয়ালেও তাই ভোট ময়দানে চৌকিদারকে চোর বলেই ফায়দা আদায়ে মরিয়া কংগ্রেস৷