নয়াদিল্লি: বলার আগে তিনি বিশেষ ভাবেন না৷ আলটপকা মন্তব্য করা তাঁর স্বভাব৷ এমনটাই বলে থাকে নিন্দুকেরা৷ সেরকমই এক আলটপকা মন্তব্যের জন্য প্রাক্তন মন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী, যা নিয়ে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি৷

একসময় এই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ড্রাগ পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগ তুলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সেই অভিযোগ এখনও অবধি প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁর এই ভুলস্বীকার৷ তাই পাঞ্জাবের অকালি দলের প্রাক্তন মন্ত্রীর কাছে চিঠি লিখে ক্ষমা চাইলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷

আরও পড়ুন: মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে সরগরম দেশ

পাঞ্জাবের প্রাক্তন রাজস্ব মন্ত্রী বিক্রম সিং মাঝিথিয়াকে চিঠি লিখেছেন মাফলার ম্যান৷ চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘‘অতীতে আপনার বিরুদ্ধে ড্রাগ পাচারে জড়িত থাকার জন্য কিছু মন্তব্য ও অভিযোগ করেছিলাম৷ সেই মন্তব্য পরবর্তীকালে রাজনৈতিক ইস্যু হয়ে যায়৷ এখন জানতে পেরেছি সেই অভিযোগের কোনও সারবত্তা খুঁজে পাওয়া যায়নি৷ তাই সেই সময় যা মন্তব্য ও অভিযোগ করেছিলাম সব ফিরিয়ে নিচ্ছি৷’’

প্রসঙ্গত পাঞ্জাবের ভোটের সময় অকালি দলের ওই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি কোটি কোটি টাকার ড্রাগ পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগ তুলেছিলেন৷ নির্বাচনের সময় এই মন্তব্য শোরগোল ফেলে দেয়৷ যার প্রভাব পড়ে ভোট বাক্সেও৷ ক্ষমতাচ্যুত হয় অকালি দল৷ ফায়দা হয়নি আম আদমি পার্টিরও৷

আরও পড়ুন: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মূর্তি ঢাকা হল গেরুয়া বসনে

এই মন্তব্যের জন্য কেজরির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ঠুঁকে দেন মাঝিথিয়া৷ এই প্রথম নয়৷ কেজরির মাথার আরও মানহানির মামলা ঝুলছে৷ কেন্দ্রের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির বিরুদ্ধে দিল্লি ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের তহবিল তছরুপ করার অভিযোগ তুলেছিলেন৷ সেই নিয়েও দিল্লি হাইকোর্টে কেজরির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন জেটলি৷