স্টাফ রিপোর্টার, হলদিয়া: স্ত্রীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের সন্দেহের জেরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করল স্বামী৷ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সুতাহাটা থানার গোপালপুর এলাকায়৷ ঘটনায় গুরুতর আহত মহিলা৷

আরও পড়ুন: ‘অর্ডার-অর্ডার-অর্ডার নয়, ‘লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশনে’ মজেছেন হাসিন

জানা গিয়েছে, ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহবধূর স্বামী হলদিয়ার একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী। শনিবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ বাড়ি ফিরে কী কী রান্না হয়েছে তা স্ত্রীর কাছে জানতে চায় ওই যুবক। পছন্দের খাবার হয়নি দেখেই ক্ষেপে ওঠে সে৷ এরপর আচমকাই সামনে পড়ে থাকা কাটারি দিয়ে হামলা করে স্ত্রীর উপর। কাটারির কোপে ওই মহিলার ডান হাতটি প্রায় কবজি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ক্ষত বিক্ষত হয় তাঁর বাম হাতের আঙুলগুলিও। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে কলকাতায় পাঠানো হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁর সঙ্গে অন্য কারও সম্পর্ক রয়েছে৷ এই সন্দেহে প্রায়ই ওই গৃহবধূকে মারধর করত স্বামী৷ একাধিকবার এই নিয়ে পাড়ায় সালিশি সভাও বসেছে। ওই দম্পতির তিন মেয়ে আছে৷ তাঁরা প্রত্যেকেই বিবাহিতা। অভিযুক্ত যুবক পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে সুতাহাটা থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: মহাবীর কোলিয়ারির জলবন্দি শ্রমিকদের উদ্ধারে ‘ক্যাপসুল’ নজির