স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: এ যেন পণ্য বিকিকিনি! সাধারণত কোনও পণ্য কেনার পর সেটি পছন্দ না হলে উপায় থাকে দু’টো৷ এক রিটার্ন আর দুই একচেঞ্জ৷ তবে এক্ষেত্রে দুটোর একটি অফারও কার্যকর নয় বলে গৃহবধূকে খুনই করে বসল তার স্বামী৷ মাত্র ১৪ দিনের বিবাহিত জীবনেই এমন কাণ্ড ঘটিয়ে বসলেন মূর্তিমান৷

বুঝতে পারলেন না তো! এই অংশটুকু পড়ে কিছু না বোঝাই স্বাভাবিক৷ আসল কারণ শুনলে চক্ষু-চড়কগাছ হবে আপনার৷ বিয়ের পর স্ত্রীকে সুন্দর দেখতে নয় বলে শ্বাসরোধ করে খুন করে স্বামী৷ খুনের পর কিছু বুঝে উঠতে না পেরে মৃতদেহের উপর কম্বল চাপা দিয়ে দেয় অভিযুক্ত৷ এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সিউড়ি থানা এলাকার ছোট আলুন্দা গ্রামে৷ আর এই ঘটনার পর রীতিমতো উত্তেজনার সৃষ্টি হয় গোটা চত্বরে৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, সিউড়ি থানা এলাকার জনিদপুর গ্রামের বাসিন্দা আঞ্জু খাতুন ওরফে পিংকির সঙ্গে ১৪ দিন আগে বিয়ে হয়েছিল ছোট আলুন্দা গ্রামের বাসিন্দা গোলাম রসুলের৷ বিয়ের পর আটদিন সব কিছু ঠিক থাকলেও সমস্যার সূত্রপাত ঘটে অষ্টমঙ্গলার পর থেকে৷ ছেলের মনে হয় মেয়েকে দেখতে ভালো নয়৷ তাই মেয়েকে পছন্দ হয় না গোলামের৷ আর এই কারণেই শুরু হয় অশান্তি৷ মৃত পিংকির পরিবারের অভিযোগ, প্রায় দিনই মেয়েকে ধরে মারধর করত ছেলের বাড়ির লোকজন৷ শনিবার রাতে তাদের মধ্যে চরম অশান্তি শুরু হয়৷ অভিযোগ, তখনই শ্বাসরোধ করে নববধূকে খুন করে গোলাম৷ এমনকি হত্যার পর মৃত গৃহবধূর উপর কম্বল চাপা দিয়ে দেয় স্বামী৷

মেয়ের দাদা শেখ কুতুব উদ্দিন বলেন, ‘‘অষ্টমঙ্গলার পর থেকেই জামাই আমার বোনের উপর অত্যাচার করতে থাকে৷ তবে কোনওদিন ভাবিনি এভাবে বোনকে মেরে ফেলবে৷ বোনের মারা যাওয়ার খবরটাও আমরা প্রতিবেশীদের কাছ থেকে প্রথম পাই৷ দোষীদের যেন চরম শাস্তি হয়৷’’ ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমেছে সিউড়ি থানার পুলিশ৷ যদিও এদিন মৃতদেহ তুলতে গেলে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় পুলিশকে৷ তবে তদন্তে নেমেই মূল অভিযুক্ত গোলাম রসুলকে আটক করেছে সিউড়ি থানার পুলিশ৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV