ওয়াশিংটন: ‘ছবি’ কেলেঙ্কারিতে এবার নাম জড়ালো খোদ মার্কিন নৌ বাহিনীর৷ নৌসেনায় কর্মরত মহিলা কর্মীদের নগ্ন ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই রাতের ঘুম উড়েছে ট্রাম্প প্রাশনের৷ নারী দিবসের আগে ‘নগ্ন ছবি’ কেলেঙ্কারির জাল গোটাতে তড়িঘড়ি তদন্তে নামল মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রক৷

সম্প্রতি মার্কিন নৌবাহিনীর অফিসিয়াল ফেসবুক গ্রুপে প্রায় কয়েক হাজার মহিলা নৌসেনার নগ্ন ও আপত্তিকর ছবি পোস্ট করা হয়েছে৷ মুহূর্তেই আলোড়ন পড়ে যায় গোটা বিশ্বে৷ নৌসেনা বাহিনীর ‘মেরিন ইউনাইটেড’ পেজে মহিলা কর্মীদের নগ্ন ছবি পোস্ট হতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন৷ নরী দিবসের আগে নৌ বাহিনীতে ‘ছবি’ অস্বস্তি ঢাকতে তদন্ত শুরু করে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রক৷

তদন্তে নেমে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কর্তারা জানতে পারেন, গত ৩০ জানুয়ারি থেকে লাগাতার নগ্ন ছবি পোস্ট করার প্রক্রিয়া শুরু হয়৷ মার্কিন নৌ সেনার প্রায় ২৪ জন মহিলা কর্মীর নগ্ন ছবি চিহ্নিতও করা হয়৷ কর্মরত অবস্থায় মহিলা কর্মীদের উপর যৌন অত্যাচারের ঘটনা দেখে রীতিমতো তাজ্জব বনে যান মার্কিন কর্তারা৷

এই ঘটনার আকস্মিকতা কাটিয়ে গোটা ঘটনাটি তদন্তের জন্য সেন্টাল ফর ইনভেস্টিগেশন দফতর ও ওয়াট হাউজকে জানানো হয়৷ শুরু হয় তদন্ত৷ ওই ফেসবুক পেজের অ্যাডমিনের সন্ধান শুরু করে পুলিশ৷ ছবি কেলেঙ্কারি যুক্ত থাকার পেছনে বেশ কয়েকজন নৌসেনা কর্মীকে চিহ্নিত করে পুলিশ৷ যৌন নির্যাতিতাদের সঙ্গেও আলাদা ভালে কথা বলে পুলিশ৷ তবে, মহিলা কর্মীদের নগ্ন ছবি কিভাবে ফাঁস হল তা এখনও জানতে পারেনি মার্কিন পুলিশ৷