স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ফের পুলিশের মানবিক মুখ দেখল উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর। অসমের পথভোলা এক যুবককে ঘরে ফেরাল উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর থানার পুলিশ। গত ৬ মাস আগে কাজের খোঁজে অসম থেকে এ রাজ্যে এসেছিল বাঙালি যুবক প্রজ্জ্বল সরকার।

প্রথমে শিলিগুড়ি এবং এরপর এক পণ্যবাহী লরিচালকের খালাসীর কাজ নিয়ে সে কলকাতায় চলে আসে। ওই লরিচালকের সঙ্গেই গত ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছিল প্রজ্জ্বল। লরি চালক এরপর বীজপুর থানার অন্তর্গত কল্যাণী হাইওয়ের কাঁপা মোড়ে ওই যুবককে ফেলে পালিয়ে যায়৷

আরও পড়ুন : নববর্ষে মমতার জন্য তৈরি জায়েন্ট গ্রিটিংস কার্ড

২২ ডিসেম্বর থেকে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছিল অসমের ভোরাগাওয়ের বাসিন্দা প্রজ্জ্বল । গত ২৭ ডিসেম্বর বীজপুর থানার পুলিশ ইতঃস্তত ঘুরতে দেখে ওই যুবককে। এরপর পুলিশ তাকে বীজপুর থানায় নিয়ে আসে এবং জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে অসম থেকে এ রাজ্যে কাজের খোঁজে এসে সে এক লরিচালকের খপ্পরে পড়ে প্রতারিত হয়েছে।

বীজপুর থানার পুলিশ ওই যুবককে জিজ্ঞাসাবাদ করে অসমে তার বাড়ির ঠিকানা জানতে পারে। বীজপুর পুলিশ যোগাযোগ করে অসমের সুন্দরবা থানার সঙ্গে। সেখানে পুলিশ জানায় অসমের ওই যুবক বীজপুরে সুরক্ষিত আছে। এদিকে বীজপুর থানায় প্রজ্জ্বল রয়েছে এই খবর পেয়ে রবিবার থানায় হাজির হয় অসমের ওই যুবকের আত্মীয়রা। তারা প্রজ্জ্বলকে চিনতে পারে।

রবিবার রাতেই প্রজ্জ্বলকে নিয়ে সমস্ত আইনি প্রক্রিয়া মিটিয়ে অসমে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তার পরিবার৷ ছয় মাস পর ওই যুবককে ফিরে পেয়ে ভীষণ খুশি তাঁর আত্মীয়রা৷ বীজপুর থানার পুলিশকে তাঁরা ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷