মোবাইলের পিছনে এক ক্যামেরার দিন শেষ। পাঁচটি ক্যামেরা লেন্সের ‘মেইট ৩০ প্রো’স্মার্টফোন বাজারে আনতে পারে হুয়াই। আগের বছর তিন ক্যামেরার স্মার্টফোন পি-২০ বাজারে এনে কার্যত মোবাইলপ্রেমীদের চমকে দিয়েছিল চিনের এই সংস্থা। পি-২০ ছিল বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন যাতে তিনটি ক্যামেরা ছিল। তিন ক্যামেরার সেই স্মার্টফোন মোবাইলপ্রেমীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়ও হয়ে উঠেছিল। তাই এবার আরও এক ধাপ এগিয়ে পাঁচ ক্যামেরার অসাধারণ একটি স্মার্টফোন আনতে চলেছে হুয়াই।

পিছনে পাঁচ ক্যামেরা লেন্স ব্যবস্থার জন্য সিআইএনপিএ (চায়না ন্যাশনাল ইন্টেলেকচুয়াল প্রোপার্টি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন)-এর কাছে ইতিমধ্যে পেটেন্ট জন্যে আবেদন জানিয়েছে এই সংস্থা। এর আগে এলজি তাদের ভি৪০ থিনকিউ ফোনে মোট ৫টি ক্যামেরা আনে যেটির পেছনে তিনটি ও সামনে দুই ক্যামেরা ছিল। তবে সংস্থার এই ফোনের ক্ষেত্রে কেবল পিছনেই পাঁচ ক্যামেরার পেটেন্ট আবেদন করল।

মনে করা হচ্ছে নতুন মেইট ৩০ প্রো’র পিছনে ত্রিভুজাকার পাঁচ ক্যামেরা লেন্স ব্যবস্থার সঙ্গে এলইডি ফ্ল্যাশ রাখা হবে। সংস্থার বর্তমান ফ্ল্যাগশিপ মেট ২০ প্রো-তে রয়েছে তিন ক্যামেরা এবং ৭ ন্যানোমিটার কিরিন ৯৮০ প্রসেসরের মতো উচ্চমানের মাদার বোর্ড। পি২০, মেট ২০ এবং নোভা সিরিজের সাফল্যে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর নাগাদ সংস্থার স্মার্টফোন সরবরাহ ২০ কোটি ছাড়ায়। এতে চিনা সংস্থাগুলির মধ্যে রেকর্ড গড়ে হুয়াই।

উল্লেখ্য, গত ২০১৮ সালে অ্যাপলকে টপকে দ্বিতীয় বৃহত স্মার্টফোন বিক্রেতা সংস্থার তকমা পায় হুয়াই। যদিও আবার অ্যাপল নিজের জায়গা ফিরে পায় বিশ্বের বাজারে। যদিও নতুন করে অ্যাপলকে পিছনে ফেলে এক নম্বর হওয়ার দৌড়ে এগোচ্ছে চিনের এই অন্যতম বৃহত মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থা।