স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা আবহে উচ্চ মাধ্যমিকের তিনটি পরীক্ষা স্থগিত হয়ে গিয়েছে। সেই তিন পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার তিনি জানিয়েছেন, পরিস্থিতি ঠিক থাকলে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি তিনটি পরীক্ষা ২৯ জুন, ২ ও ৬ জুলাই হতে পারে। চূড়ান্ত হলে তা ঘোষণা করা হবে।

ইতিমধ্যে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের চারটি আঞ্চলিক অফিসকে রাজ্য সরকার একটি নির্দেশিকায় জানিয়েছে, ৪ থেকে ১৫ মে-র মধ্যে রেলস্টেশন, থানা এবং ট্রেজারি থেকে আঞ্চলিক অফিসগুলি উত্তরপত্র সংগ্রহ করবে। ৪ মে থেকে ১০ জুনের মধ্যে প্রধান পরীক্ষকদের কাছে উচ্চ মাধ্যমিকের উত্তরপত্র পৌঁছবে। পাঁচদিনের মধ্যে তাঁরা পরীক্ষকদের হাতে খাতাগুলি তুলে দেবেন।

এছাড়াও, উত্তরপত্র বিলি করার সময় ৫ জনের বেশি পরীক্ষককে একসঙ্গে ডাকা যাবে না। প্রত্যেককে সর্তকতা মেনে কাজ করতে হবে। চলতি বছরে পরীক্ষকদের নিয়ে কোনও বৈঠক হবে না বলেও নির্দেশিকায় জানানো হচ্ছে।

এদিকে স্থগিত উচ্চ মাধ্যমিকের তিনটি পরীক্ষা হওয়ার পর ফলপ্রকাশ জুলাই মাসের আগে সম্ভব নয়। ফলে কলেজে স্নাতকে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে আগস্ট মাস জুড়ে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)-র সুপারিশ, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাবর্ষ জুলাই মাসের পরিবর্তে সেপ্টেম্বরে শুরু হোক। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের প্রথম সেমেস্টার হবে না। শুধুমাত্র বছরের শেষ সেমেস্টারটি হবে।

উল্লেখ্য, করোনা সতর্কতায় মার্চের মাঝামাঝি সময় থেকেই স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠনপাঠন বন্ধ হয়ে যায় রাজ্যে। তারপরই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, প্রথম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সবাই পাশ করিয়ে দেওয়া হবে। তারপর একাদশ শ্রেণি নিয়েও সিদ্ধান্ত জানায় রাজ্য।

শিক্ষামন্ত্রী ঘোষণা করেন একাদশ শ্রেণির সবাইকে পাশ করিয়ে দেওয়া হবে। উচ্চমাধ্যমিকের মতো একাদশ শ্রেণিরও পরীক্ষা অসম্পূর্ণ ছিল। মাধ্যমিকের খাতা দেখার বিষয়েও কয়েকদিন আগে সরকারি সিদ্ধান্ত জানান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, মাধ্যমিকের খাতা দেখা শেষ হয়েছে। লকডাউন উঠলেই ফলপ্রকাশ করা হবে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV