স্টাফ রিপোর্টার: সাত সকালে ট্রেন দুর্ঘটনা। পাঁশকুড়ার কাছে লাইনচ্যুত হয়ে গেল হাওড়া-পুরী ধৌলি এক্সপ্রেস।

ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত হতাহতে কোন খবর নেই। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন রেলের আধিকারিকরা।

ভোগপুর ও পাঁশকুড়া স্টেশনের মাঝেই ঘটনাটি ঘটে। সকাল ৭টা ১০ মিনিটে লাইনচ্যুত হয়ে যায় ওই ট্রেন। ঘটনার পরেই ট্রেনটি ব্রেক কষে দাঁড়িয়ে পড়ে। সামান্য ঝাঁকুনি অনুভুত হলেও কোনও হতাহতের খবর নেই।

ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও ওই লাইন দিয়ে সব ট্রেন ধীর গতিতে যাচ্ছে। রেলের আধিকারিকরা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এরকম একটি দুর্ঘটনায় যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

চালু করা হয়েছে হেল্পলাইন নম্বর। হাওড়া স্টেশনের হেল্পলাইন নম্বর 03326377197, খড়গপুর স্টেশনের হেল্পলাইন নম্বর 03222255897 ও বালাসোরের হেল্পলাইন নম্বর 06782265767.

লাইনচ্যুত রেলের বগি সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। পরিষেবা স্বাভাবিক হতে আরও কয়েক ঘন্টা সময় লাগবে বলে মনে করছেন রেলকর্তারা৷ বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে এদিন বেঁচে যায় ট্রেনটি। ঘটনার জেরে দক্ষিণ পূর্ব শাখার রেল চলাচলে কোনও প্রভাব পড়েনি। অন্যান্য লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল করছে।

হাওড়া থেকে যাওয়া ফলকনুমা এক্সপ্রেসে সব যাত্রীকে তুলে দেওয়া হয়েছে। ট্রেনটি সেকেন্দরাবাদের দিকে যাচ্ছে। ধৌলি এক্সপ্রেসের যেসব স্টেশনে থামার কথা, সেইসব গুলিতেই দাঁড়াবে এই ট্রেনটি।

চলতি বছরে এর আগেও একই ধরনের দুর্ঘটনার সাক্ষী থেকেছে হাওড়া। গত অগস্ট মাসে হাওড়া স্টেশনে লাইনচ্যুত হয়ে যায় ইস্পাত এক্সপ্রেস৷ কারশেড থেকে প্ল্যাটফর্মে ঢোকার মুখে বেলাইন হয়েছে হয়ে গিয়েছিল ওই ট্রেন৷

একদম পেছনের ইঞ্জিন বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV