কলকাতাঃ  উত্তরবঙ্গের পর এবার খোদ হাওড়াতে। করোনা আক্রান্ত হাওড়া জেলা হাসপাতালের এক শীর্ষ আধিকারিক। জানা গিয়েছে, হাসপাতালের ওই শীর্ষ আধিকারিকের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সাম্প্রতিক সময়ে ওই শীর্ষ আধিকারিকের বিদেশযাত্রার কোনও তথ্য নেই। ফলে মনে করা হচ্ছে, কোনও ভাবে করোনাতে আক্রান্ত কোনও রোগীর কাছাকাছি আসার ফলেই ওই আধিকারিক করোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন।

যদিও সবদিক খতিয়ে দেখছেন স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা। জানা গিয়েছে হাওড়া জেলা হাসপাতালের ওই আধিকারিককে ইতিমধ্যে ভর্তি করা হচ্ছে এম আর বাঙুর হাসপাতালে। কিন্তু সবথেকে চিন্তার বিষয় হল, করোনাতে আক্রান্ত ওই স্বাস্থ্য আধিকারিকের সংস্পর্শে এসেছিলেন বেশ কয়েকজন চিকিত্সক এবং স্বাস্থ্য কর্মী। তাঁদেরকেও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। প্রয়োজনে তাঁদেরও রক্তের নমুনা পরীক্ষা করে দেখা হবে বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, বুধবার উত্তরঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারি সুপার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলবারই কিছু শারীরিক সমস্যার কারণে তাঁকে হোম কোয়ারান্টাইনে থাকতে বলা হয়েছিল। ওই রাতেই চিকিৎসক সুদীপ্ত মণ্ডলের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য মেডিকেলের ভাইরাস রিসার্চ অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়। বুধবার ওই চিকিৎসকের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তড়িঘড়ি তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক মহিলার মৃত্যু হয়। কালিম্পঙের বাসিন্দা ওই মহিলা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিলেন। সম্প্রতি তিনি চেন্নাই থেকে বিমানে বাগডোগরায় নেমে শিলিগুড়িতে এক আত্মীয়ের বাড়িতে উঠেছিলেন। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরে শারীরিক অবস্থার অবনতিতে তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়েছিল। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই মহিলা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর থেকে সহকারি সুপার চিকিৎসক সুদীপ্ত মণ্ডল ও তাঁর সহকর্মীরা সুরক্ষা নিয়েই তাঁর চিকিৎসা চালিয়েছিলেন। ওই মহিলাকে হাসপাতালের রেসপিরেটরি ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে রেখে চিকিৎসা করা হচ্ছিল।

পরে ওই মহিলার পরিবারের সদস্য, আত্মীয় পরিবারের সদস্য সহ তাঁর চিকিৎসা করা এক চিকিৎসককেও হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়। এমনকী মৃত মহিলার পরিবারের আরও ছয় সদস্যের লালারসের নমুনায় করোনা পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে।

আগেই কালিম্পঙের করোনা আক্রান্ত ওই মহিলার চিকিৎসায় যুক্ত থাকা মেডিক্যাল কলেজের এক নার্সও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব