নিজস্ব সংবাদদাতা: গত বছর রাজ্যের করোনা চিকিৎসায় কার্যত নজির গড়েছিল উলুবেড়িয়ার ফুলেশ্বররে সঞ্জীবন হাসপাতাল।  উল্লেখ্য, হাজার-হাজার মানুষ এমনকি শতায়ু বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদেরকেও করোনা থেকে সুস্থ করে তুলেছিল এই বেসরকারি হাসপাতাল।

দেশের পাশাপাশি এরাজ্যেও ফের লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ভোট আবহের মাঝেই করোনার এহেন বাড়বাড়ন্তে রীতিমতো উদ্বিগ্ন রাজ্য প্রশাসন। ফের করোনা চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে রাজ্যের বেশ কয়েকটি হাসপাতালকে। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাজ্যস্তরে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক হয়। সেখানে ফুলেশ্বরের সঞ্জীবন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে তাদের হাসপাতালের ১০০ টি বেড করোনা আক্রান্তদের জন্য প্রস্তুত রাখার কথা বলা হয়েছে।

সেই মোতাবেক ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়েছে গ্রামীণ হাওড়ার এই হাসপাতালে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন এলাকায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা। বহু রোগীকেই ইতিমধ্যেই হাওড়া সদরের কোভিড হাসপাতালগুলিতে ভর্তি করা হয়েছে। এরকমই এক পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে সঞ্জীবন হাসপাতালকে ১০০ টি বেড করোনা আক্রান্তদের জন্য প্রস্তুত রাখার কথা বলা হয়েছে।

বছরঘুরে দেশজুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। পিছিয়ে নেই এরাজ্যও। হাওড়া জেলার অন্যান্য এলাকার মতো উলুবেড়িয়াতেও করোনা সংক্রামিতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

পুরসভা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত উলুবেড়িয়া পৌর এলাকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫। এদের মধ্যে ৮০ জন হোম আইসোলেশনে থাকলেও বাকি ১৫ জন হাওড়া জেলার বিভিন্ন করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অন্যদিকে, উলুবেড়িয়া পৌর এলাকায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এখনো অব্ধি ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.