হাওড়া;   শহরে ফের বাড়ল কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা। শহরের বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে কোভিড সংক্রমণের কারণে কন্টেনমেট জোনের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। তবে গোটা জেলার হিসাব অনুযায়ী কন্টেনমেট জোনের সংখ্যা কমেছে। ৩ সেপ্টেম্বর সরকারিভাবে প্রকাশিত কন্টেনমেন্ট জোনের তালিকা অনুযায়ী হাওড়া শহরে কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২টি।

এর পাশাপাশি গোটা জেলা হিসাবে হাওড়ায় মোট কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা কমে হয়েছে ৭৪টি। এই তালিকা অনুযায়ী বেশ কয়েকটি এলাকাকে কন্টেনমেন্ট জোনের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। আবার কিছু এলাকা যুক্ত হয়েছে।

পুনরায় পুনরায় করোনা সংক্রমণ না হওয়ায় তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে, ২ নং ওয়ার্ডের দয়ারাম নস্কর লেন ও কৃষ্ণতারণ নস্কর লেন, ৩ নং ওয়ার্ডের ভুবন মোহন মুখার্জী লেন। করোনা সংক্রমণ বেশী হওয়ায় ৩ নং ওয়ার্ডের শশীভূষণ মুখার্জী লেন, ৬ নং ওয়ার্ডের কামিনী স্কুল লেন, ২৯ নং ওয়ার্ডের ঋষি বঙ্কিম চন্দ্র রোড তেলকল ঘাট রোড ও নিত্যধন মুখার্জী রোড ও বিপ্লবী হরেন্দ্র ঘোষ রোড এই তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে।

অন্যদিকে, বাংলায় একদিনে ফের বাড়ল মৃতের সংখ্যা, আক্রান্ত প্রায় তিন হাজার৷ তবে সুস্থ হয়ে ওঠার হার ৮৩ শতাংশের বেশি৷ গত ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪৪ হাজারের বেশি টেস্ট৷ জানিয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর৷

বুধবারের রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী,একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৫৬ জনের৷ মঙ্গলবার ছিল ৫৫ জন৷ তুলনামূলক ভাবে একদিনে ফের বাড়ল মৃতের সংখ্যা৷ তবে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজ্যে ৩ হাজার ৩৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

যে ৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে কলকাতার ১৭ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ৬ জন৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৫ জন৷ হাওড়া ১১ জন৷ হুগলি ২ জন৷ পশ্চিম বর্ধমান ১ জন৷ পূর্ব মেদিনীপুর ৩ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ২ জন৷ বাকুড়া ১ জন৷ বীরভূম ১ জন৷ নদিয়া ১ জন৷ মুর্শিদাবাদ ২ জন৷ আলিপুরদুয়ার ৪ জন৷

গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২,৯৭৬ জন৷ মঙ্গলবার ছিল ২,৯৪৩ জনে৷ সব মিলিয়ে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৯৭ জন৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।