শীতের ঝোড়ো ব্যাটিং শেষের মুখে। বঙ্গ থেকে ধীরে ধীরে বিদায় নিতে চলেছে শীত। আকাশে বাতাসে লেগেছে ফাল্গুনী হাওয়ার দোলা। যেন দুয়ারে বসন্ত এসে গিয়েছে। আবহাওয়া বসন্তের আগমনী বার্তা জানান দিলেও এখনও পুরোদমে বসন্ত আসতে বেশকিছু দিন দেরি আছে।

তবে এই সিজন চেঞ্জের সময়ে মনে খুশির দোলা দিলেও স্বাস্থ্য নিয়ে সমস্যায় পড়েন অনেকেই। বিশেষ করে ত্বকের ক্ষেত্রে। কারণ, শীতের রুক্ষ শুস্ক ভাব কেটে গেলেও এই সময়ে চামড়া খসখসে হয়ে যায়। শুধু তাই নয় গ্রীষ্মকালে ত্বকে প্রচুর ট্যান পড়ে যায়। ঠিকমতো শরীরের যত্ন না নিলে অতিরিক্ত প্যাচ প্যাচে ওয়েদারে ত্বকে ব্রণ ফুসকুড়ি উঠতে থাকে। আর এগুলি ওয়েদার চেঞ্জের সময় খুবই সাধারণ সমস্যা ভেবে অনেকই তেমন একটা আমল দেন না। তবে এটা একদমই করা উচিত নয়।

 

৭টা – ৫টার ডিউটি হোক বা গৃহবধূ নিজের শরীরের প্রতি খেয়াল রাখা সবারই উচিত। যদিও সময়ের অভাবে অনেকরই আর নিজের যত্ন নেওয়া হয়ে ওঠে না। তবে এটা করলে চলবে না। এবার থেকে একটু নিজের জন্য সময় বার করুন। শরীর স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিন। দেখবেন কীভাবে আপনি অন্যের চোখে হয়ে উঠেছেন মোহময়ী এবং আকর্ষণীয়।

তবে এরজন্য বিশেষ কিছু করতে হবে না। ঘরোয়া কয়েকটা নিয়ম মেনে চললেই দেখবেন আসন্ন গরমেও কীভাবে আপনার ত্বক জেল্লা দেয়।

বসন্তের শেষ থেকেই আমাদের বঙ্গে গরম পড়তে শুরু করে। আর এই সময় সবথেকে সমস্যা তৈরি করে আমাদের ত্বক ও ঠোঁট। ফলে গ্রীষ্মের শুরু থেকেই ত্বকের প্রতি যত্নশীল হোন।

 

১. গরমে বাড়ির বাইরে যাওয়ার সময় হোক বা বাড়ি ফিরে ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ধোওয়া মাস্ট। এতে বাইরের ধুলোবালি ত্বক থেকে বেরিয়ে যায়। মুখ থাকে ফ্রেশ।

২. গরমে ত্বকের যত্ন নিতে টোনার বা সিরামও ব্যবহার করতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন আপনার টোনারটি যেন অবশ্যই কেমিক্যাল হীন হয়।

৩. এই সময় স্ক্র‍্যাব করাও জরুরি। গ্রীষ্মে। ত্বক ভালো রাখতে দাগছোপ দূরে রাখতে সপ্তাহে দু থেকে তিন দিন স্ক্র‍্যাব ব্যবহার করুন।

 

৪. এছাড়াও শীতের মতো গরমেও ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগানো জরুরি। আর গরমে বাড়ির বাইরে বেরোলে মনে করে সানস্ক্রীন মেখে বেরোন। তাহলে ত্বকে কালো দাগছোপ পড়বে না।

৫. প্যাঁচপেচে ওয়েদারে যারা ব্রণ ফুসকুড়ির সমস্যায় ভোগেন তাদের জন্য অ্যালোভেরা জেল ভীষণ উপকারী। এছাড়াও এই সময় মুখে বেসন, হলুদও লাগাতে পারেন। পরে তফাৎটা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

তাহলে আর কী ভাবছেন? অন্যের চোখে নিজেকে মোহময়ী করে তুলতে আজ থেকে শুরু করুন গ্রীষ্মের রুপচর্চা। তবে যায় করুন না এই সময় প্রচুর জল ও সবুজ শাকসবজি খাওয়া জরুরি বটে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।