২০১৮ তে নতুন ১০০ টাকার নোট বাজারে আসে। তবে এই নোট হাতে পাওয়ার পর অবশ্যই তা আসল না নকল পরখ করে নিতে হবে আপনাকেই৷ কারণ অনেক ক্ষেত্রেই ভুয়ো নোটের কথা জানতে পারা যায়৷

১০০ টাকার নোটের বৈশিষ্ট্যগুলি ভালো ভাবে জেনে রাখা দরকার। তবেই সহজে বোঝা যাবে আসল না নকল।
কি কি সেই বৈশিষ্ট্য:

১০০টাকার এই নোটে সামনের দিকে দেবনাগরী অক্ষরে ১০০লেখা থাকে৷ নোটের মাঝে মহাত্মা গান্ধীর ছবি রয়েছে৷ ছোট হরফে ‘RBI’, ‘ভারত’, ‘India’ এবং ‘100’ লেখা থাকে৷

এছাড়া এতে সিরিওরিটি থ্রেড আছে, তাতে রয়েছে কালার শিফট্৷ নোটগুলিকে মুড়লে থ্রেডের রং সবুজ থেকে নীল হয়ে যায়৷

এছাড়া নোটের সামনের দিকে গভর্ণরের সই এবং গান্ধীজির ছবির ডানদিকে আরবিআই-এর এমব্লেম রয়েছে৷ ডানদিকে রয়েছে অশোক স্তম্ভ৷ মহাত্মা গান্ধীর পোর্ট্রেট এবং ইলেক্ট্রোটাইপ(১০০) ওয়াটার মার্ক রয়েছে৷

নোটের পিছনে প্রিন্টিং-এর বছর দেওয়া থাকবে৷ পিছনে দেওয়া থাকে স্বচ্ছ ভারতের লোগোও৷

হোসাঙ্গাবাদের সিকিউরিটি পেপার মিলে স্বদেশীয় কাগজ এবং কালি ব্যবহার করা ছাপানো হয় নোটগুলি। এতে আছে গুজরাতের ‘রানি কি ভভ’-এর ছবি। ২০০০ টাকার নোটও একই প্রেসে ছাপানো হয়েছিল। দেবনাগরী অক্ষরে ১০০ লেখা থাকবে৷

যদি এইসব বৈশিষ্ট্য মনে না থাকে তাহলে আরবিআই-এর সাহায্যেও আপনি নোট চেক করতে পারেন৷ ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক paisaboltahai.rbi.org.in পোর্টাল শুরু করেছে বলে জানা গিয়েছে৷ এখানে আপনি নোটের সত্যাসত্য নিজে যাচাই করে দেখে নিতে পারবেন৷

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।