নয়াদিল্লি :  ২ তারিখ সোমবার ন্যাশেনাল বোর্ড অব এক্সামিনেশন ২০২১ সালের NEET PG অ্যাডমিট কার্ড nbe.edu.in ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে। জাতীয় স্তরের পিজি মেডিকেল প্রবেশিকা পরীক্ষা ১৮ এপ্রিল নির্ধারিত করা হয়েছে। এর পাশাপাশি অনলাইনের মাধ্যমে কেন্দ্রগুলিতে কম্পিউটার ভিত্তিক পরীক্ষা দিতে হবে পরীক্ষার্থীদের । ২০২১ সালের NEET PG প্রতিটা প্রার্থীদের তাদের নিজের নামের অ্যাডমিট কার্ড ইস্যু করতে হবে।

১২ তারিখ NBE তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে পরীক্ষার্থীদের অ্যাডমিট কার্ড প্রকাশ করেছে। NEET PG পরীক্ষার্থীদের সেই ওয়েবসাইটে গিয়ে আইডি দিয়ে লগইন করে সেই অ্যাডমিট কার্ডের একটা সফটকপি ডাউনলোড করতে হবে। সুবিধার কথা মাথায় রেখে NBE ওয়াবসাইটে কীকরে লগইন করে ডাউনলোড করতে হবে অ্যাডমিট কার্ড তার একটি বিবরণ এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হল।

সবথেকে প্রথমে প্রার্থী কে NBE এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে, যার ঠিকানা nbe.edu.in। এর পর হোমপেজে প্রদর্শিত হওয়া NEET PG অপশনে ক্লিক করতে হবে ডাক্তারি পরীক্ষা দিতে চলা পরীক্ষার্থীকে। ক্লিক করবার পর ওয়েবসাইটের পৃষ্ঠাটির ডান দিকে অ্যাপ্লিকেন্ট লগইন বলে একটি অপশনের দেখা মিলবে যেখানে লগইন করতে হবে অ্যাডমিট কার্ডের জন্য।

এর পরের পর্বে NEET PG পরীক্ষার্থীদের অ্যাডমিট কার্ডের জন্য নিজেদের আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে। প্রতিটা আলাদা আলাদা পরিক্ষার্থীর ভিন্ন আইডি এবং পাসওয়ার্ড থাকে। আর তাই ভুল আইডি কিংবা পাসওয়ার্ড দিলে লগইন হবেনা এটা মাথায় রাখতে হবে।

আইডি পাসওয়ার্ড দেওয়ার পর লগইন করলে পৃষ্ঠার একেবারে ওপরে একটি হল টিকিটের অপশন প্রদর্শিত হবে। এই অপশনে ক্লিক করলে অ্যাডমিট কার্ড সেভ এবং ডাউনলোডের একটি অনুমতি চাওয়া হবে পরীক্ষার্থীর কাছে। অনুমতি দিলে ডিভাইসে ডাউনলোড হয়ে যাবে NEET PG অ্যাডমিট কার্ডটি। আর এখান থেকে প্রিন্ট ও করতে পারবে সেই ব্যবহারকারী।

সরকারী নির্দেশাবলী অনুসারে, ডাউনলোড করা অ্যাডমিট কার্ডটির সঙ্গে অবশ্যয় একটি 35mm x 45mm সাইজের সাম্প্রতিক ছবি আটকাটে হবে। এর পাশাপাশি ছবিটির নিচে কবে ছবিটি তোলা হয়েছে তার তারিখ এবং পরীক্ষার্থীর নাম উল্লেখ করতে হবে। ১৮ এপ্রিল কেন্দ্রগুলিতে পরীক্ষা দিতে যাবার সময় সঙ্গে রাখতে হবে নিজের আরেকটি ছবির সঙ্গে এমসিআই বা এসএমসি রেজিস্ট্রেশনের একটি অনুলিপি। উল্লেখযোগ্য বিষয় দেশের AIIMS, NIMHANS, PGIMER, JIPMER, এবং SCTIMST ডাক্তারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি ছাড়া বাকি সমস্ত ডাক্তারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে NEET PG পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.