কলকাতা২৪x৭: ক্রিসমাস। বছরের সবচেয়ে সুন্দর মুহূর্ত। কিন্তু অতিমারী করোনার ধাক্কায় চলতি বছরে ক্রিসমাসেও মিশে রয়েছে বিষাদের সর। তবুও আগামী সুন্দর হোক, এমন প্রত্যাশা তো সান্তার কাছে রাখতেই পারি আমরা। তাই নিরাপদে ঘরে বসেই ক্রিসমাস সেলিব্রেশন চলছে গোটা বিশ্বে। পিছিয়ে নেই ফুটবল মাঠের তারকারাও।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো থেকে রবার্ট লেওয়ানদোস্কি, লিওনেল মেসি থেকে মোহামেদ সালাহ। করোনা আবহে পরিবারের সঙ্গেই খ্রীষ্টের জন্মদিন পালন করলেন বিশ্বের তাবড়-তাবড় ফুটবলাররা। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধ্যমে তারকা ফুটবলারদের ক্রিসমাস সেলিব্রেশনের গরমাগরম ছবি পৌঁছে গিয়েছে অনুরাগীদের হাতে। একঝলকে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক ক্রিশ্চিয়ানো-লিওদের বিশেষ দিনটি সেলিব্রেশনের মুহূর্তগুলোতে।

তিন সন্তান এবং স্ত্রী আন্তোনেলার সঙ্গে বাড়িতেই ক্রিসমাসের ছুটি কাটালেন সদ্য পেলের রেকর্ড ছাপিয়ে যাওয়া লিওনেল মেসি।

অনুরাগীদের সুস্থতা কামনা করে পরিবারের সঙ্গে সেলিব্রেশনে মাতলেন জুভেন্তাস তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

পরিবারের সঙ্গে গৃহবন্দি হয়েই বিশেষ দিনটি সেলিব্রেট করলেন ফিফার বর্ষসেরা তথা বায়ার্ন তারকা রবার্ট লেওয়ানদোস্কি।

স্ত্রী এবং দুই সন্তানের সঙ্গে ক্রিসমাস সেলিব্রেশনে লিভারপুল তারকা থিয়াগো আলকান্তারা।

লিভারপুল ছাড়ার জল্পনাকে কাট করে পরিবারের সঙ্গে ক্রিসমাস সেলিব্রেশনে মো সালাহ।

প্রিয় পোষ্যের সঙ্গে ক্রিসমাস সেলিব্রেশনের ছবি শেয়ার করেছেন চেলসির বছর একুশের তারকা কাই হ্যাভার্তজ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.