প্রতীকী ছবি

মুম্বই: আপনি একজন গৃহবধু আলাদা করে নিজস্ব কোনও উপার্জন নেই তবুও আপনার রিটার্ন ফাইল করা উচিত৷ কারণ বেশ কিছু ক্ষেত্রে তাদের আয়কর রিটার্ন করার গুরুত্ব রয়েছে৷ ফলে রিটার্ন ফাইল করার বেশ কিছু সুবিধাও রয়েছে ৷

যদি ওই গৃহবধূ বয়স ষাটের তলায় হয় তাহলে বার্ষিক আয় আড়াই লক্ষ টাকা পর্যন্ত করমুক্ত , যদি ৬০-৮০ বছর হয় তাহলে বার্ষিক তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করমুক্ত এবং ৮০ বছরের বেশি হলে বার্ষিক ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করমুক্ত ৷ অর্থাৎ যদি করমুক্ত আয় হয় তাহলে তা রিটার্ন ফাইল করার দরকার নেই৷

তাও যদি আয়কর রিটার্ন ফাইল করেন তাহলে বেশ কিছু সুবিধা পাবেন –
১) নথি হিসেবে আয়কর রিটার্ন হল সবচেয়ে ভাল প্রমাণ পত্র যা বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান গ্রহণ করে থাকে ৷
২) ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে আয়ের প্রমাণপত্র হিসেবে কয়েক বছরের আয়কর রিটার্ন দিতে হয়৷ সেক্ষেত্রে আয় কোনও কিছু না থাকলেও রিটার্ন থাকলেও চলে৷
৩) ঋণের আবেদন করতে হলে আয়কর রিটার্ন তার আয়ের প্রমাণ হিসেবে দেখা হয় এবং যা দেখে ঋণদাতা ঠিক করবে তার ঋণ পাওয়ার যোগ্যতা ৷
৪) তাছাড়া তার নামে কোনও ফিক্সড ডিপোজিট বা তেমন কিছু থাকলে, তা থেকে পাওয়া সুদের জন্য আয়ের উৎস থেকে কর কাটা (টিডিএস) হয় এবং তাঁর যদি মোট আয় করমুক্ত আয়ের তলায় থাকে তাহলে তা রিফান্ড পেতে পারেন ৷ সেক্ষেত্রে তা রিফান্ড পেতে আয়কর রিটার্ন ফাইল করতে হয়৷