প্রতীকী ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: এইচআইভি আক্রান্ত রোগিকে চিকিৎসা না করিয়ে ফিরিয়ে দিল৷ এমনটাই অভিযোগ উঠল রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের বিরুদ্ধে৷ শুধু তাই নয় তাঁর সঙ্গে র্দুব্যাবহার করে ও গালাগালি দেয়৷ এই অভিযোগে হাসপাতাল সুপারকে শোকজ করল উত্তর দিনাজপুর জেলা স্বাস্থ্যদফতর।

আরও পড়ুন: স্বামীর ছবি হাতে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছেন স্ত্রী

অভিযুক্ত চিকিৎসককে চিহ্নত করে রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক। রিপোর্ট হাতে পেলেই অভিযুক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷ তার জন্য রাজ্য স্বাস্থ্যদফতরের কাছে সুপারিশ করবেন মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক।

আরও পড়ুন: গৃহবধূর উপর অত্যাচারে অভিযুক্ত স্বামী ও দেওর

রায়গঞ্জ শক্তিনগরের বাসিন্দা এক মহিলা এইচআইভি আক্রান্ত৷ তিনি বুধবার রাতে রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি হতে যান৷ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চিকিৎসক ওই মহিলাকে চিকিৎসা না করে ফিরিয়ে দেন৷ শুধু তাই নয় তাঁকে গালাগালিও দেয়। এই ঘটনা জানাজানি হতেই রোগীর আত্মীয়রা ক্ষোভে ফেটে পরেন। পরে রোগীর আত্মীয়দের চাপে তাঁকে হাসপাতালে ভরতি নিতে বাধ্য হন।

আরও পড়ুন: রাজ্য বিজেপিকে ভরসা নয়, বড় সভার দায়িত্ব শিবপ্রকাশকে দিলেন অমিত

রায়গঞ্জের চিকিৎসক জয়ন্ত ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ওই হাসপাতালের চিকিৎসক নিজের দায়িত্ব পালনে ব্যার্থ হয়েছে। কোন শাস্তি নয়, অভিযুক্ত চিকিৎসকের ক্ষমা চাওয়া উচিত।

দেখুন ভিডিও:

সমাজিক সমস্যাকে বহন করছেন অভিযুক্ত চিকিৎসক। এইচআইভি রোগিকে ফিরিয়ে দিয়ে ঠিক কাজ করেছেন কী না সেটা ভেবে দেখা উচিত অভিযুক্ত চিকিৎসকের।

আরও পড়ুন: এশিয়া কাপে ভারতকে খেলতে মানা সেহওয়াগের