কলকাতা: বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসেবে সৌরভের গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রথম অগ্রাধিকার ২০২০ আইপিএল আয়োজন করা৷ বুধবার ৪৮ বছরে পা-দিয়ে এমনটাই জানালেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘বস’৷

করোনাভাইরাস অতিমহামারীর কারণে স্থগিত রয়েছে আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ৷ চার মাস লকডাউনে সারা বিশ্বের ক্রিকেটাররা ঘরবন্দি থাকার পর ধীরে ধীরে মাঠে ফিরতে শুরু করেছে৷ বুধবার থেকে সাউদাম্পনে শুরু হয়েছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট৷ করোনা পরবর্তী এটাই প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ৷ কিন্তু ভারতে এখনও শুরু হয়নি বাইশ গজের লড়াই৷

তবে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট আশাবাাদী চলতি বছর আইপিএল আয়োজন নিয়ে৷ টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে আইসিসি-র সিদ্ধান্ত জানানোর পর আইপিএল নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড৷ ২৯ মার্চ থেকে আইপিএল শুরু হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে তা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই৷

ইন্ডিয়া টুডে-র ”Inspiration” শো-তে সৌরভ বলেন, ‘আইপিএল ছাড়া ২০২০ শেষ করতে চাই না৷ আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার হল আইপিএল আয়োজন করা৷ ৩৫ থেকে ৪০ দিন সময় পেলেই আমরা আইপিএল আয়োজন করতে পারব৷ তবে কোথায় হবে তা এখনও জানি না৷’

ভারতের মাটিতে আইপিএল আয়োজন কার্যত অসম্ভব৷ তবে ইতিমধ্যেই তিনটি দেশের ক্রিকেট বোর্ডে তাদের দেশে আইপিএল আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে৷ সংযুক্ত আরবআমিরশাহী, শ্রীলঙ্কার পর নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের তরফেও আইপিএল আয়োজনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে৷

অতীতেও বিদেশে আইপিএল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০০৯ প্রথমবার আইপিএল হয়েছিল বিদেশের মাটিতে৷ দেশের সাধারণ নির্বাচনের কারণে পুরো টুর্নামেন্টটি হয়ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে৷ পরে ২০১৪ সালে একই কারণে আংশিকভাবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে বসেছিল আইপিএলের আসর৷ তবে বিদেশে আইপিএল হলে তা হবে ব্যায়বহুল৷

এ প্রসঙ্গে সৌরভ বলেন, ‘আমি এটিকে এই ক্রমে রেখে রাখব৷ প্রথমত, আইপিএলের সীমিত উইন্ডো থাকায় আমরা সময়সীমার মধ্যে আমাদের আইপিএল করতে হবে৷ দ্বিতীয়ত, ভারত যদি সম্ভব না-হয় তবে আমরা বাইরে (বিদেশে) যাওয়ার কথা ভাবব৷ তবে কোথায় হতে পারে, তা পরে ভাবা যেতে পারে৷ কারণ আপনি যদি বাইরে যান তবে তা প্রত্যেকের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং বোর্ডের জন্য ব্যয়বহুল হবে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও