Hooghly cochin shipyard limited কর্মী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে আগ্রহী প্রার্থীদের দ্রুত আবেদন করতে জানানো হয়েছে। জানানো হয়েছে একাধিক পদে কর্মী নিয়োগের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। প্রার্থীদের অনলাইনে আব্দন করতে জানানো হয়েছে। আবেদনের শেষ তারিখ ২ ফেব ২০২১। দ্রুত আবেদন করতে জানানো হয়েছে।

junior technical assistant পদের জন্য রয়েছে ২ টি শূন্য পদ। যার মধ্যে রয়েছে মেকানিক্যাল এর জন্য একটি এবং ইলেক্ট্রিক্যালের জন্য একটি শূন্য পদ। এইপদে আবেদনের জন্য প্রার্থীদের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে ডিপ্লোমা করতে হবে। অথবা ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে ডিপ্লোমা করতে হবে। এছাড়া জানানো হয়েছে প্রার্থীদের ৬০ শতাংশ নম্বর রাখতে হবে। জানানো হয়েছে প্রার্থীদের কমপক্ষে ৪ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। প্রার্থীদের বয়স ৩৫ বছরের মধ্যে হতে হবে।

বেতন হবে মাসিক ২৩৫০০ থেকে ৭৭০০০ এর মধ্যে। store keeper পদের জন্য রয়েছে ১ টি শূন্য পদ। এই পদের জন্য প্রার্থীদের কমপক্ষে স্নাতক হতে হবে। অথবা ডিপ্লোমা করতে হবে বলে জানানো হয়েছে। প্রার্থীদের ৪ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে বলে জানানো হয়েছে। প্রার্থীদের কম্পিউটারে দক্ষ হতে হবে বলে জানানো হয়েছে। প্রার্থীদের বয়স ৩৫ বছরের মধ্যে হবে বলে জানানো হয়েছে। মাসিক বেতন ২৩৫০০ থেকে ৭৭ হাজারের মধ্যে হবে। এছাড়া আরও বেশ কিছু পদে কর্মী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। বিস্তারিত জানার জন্য www.cochinshipyard.com ওয়েবসাইটে চোখ রাখতে হবে। আবেদন ফি বাবদ ৪০০ টাকা দিতে হবে। তবে সংরক্ষিতদের ক্ষেত্রে কোন ফি দিতে হবে না।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।