স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ফিজিওথেরাপি সেন্টারের আড়ালে রমরমিয়ে মধুচক্র চলছিল খাস কলকাতার বুকে৷ ঘটনাটি গড়িয়ার৷ স্থানীয় মানুষের তৎপরতায় শনিবার সন্ধেয় মধুচক্রের পর্দা ফাঁস হয়৷ সংশ্লিষ্ট সেন্টারের ৯ জন মহিলা ও ৫ জন পুরুষকে আটক করে রাখেন এলাকার বাসিন্দারা৷ খবর পেয়ে সোনারপুর থানার পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷

আরও পড়ুন: জমি দখলে অভিযুক্ত প্রাক্তন কাউন্সিলর, আত্মহত্যার চেষ্টা গৃহবধূর

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, গড়িয়ার একটি বালিকা বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার একটি বাড়ি ফিজিওথেরাপি সেন্টার করার জন্য ভাড়া নেওয়া হয় গত নভেম্বরে৷ ওই বাড়ির চারটি ঘর ভাড়া নেওয়া হয়েছিল ফিজিওথেরাপি সেন্টারের জন্য৷

বাসিন্দারা জানান, দিনভরই ওই ঘরগুলোর জানালা বন্ধ থাকত৷ এবং ভোরের আলো ফোটার পর থেকেই সেখানে প্রতিদিন অপরিচিত মহিলা ও পুরুষের আনাগোনা হত৷ সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে নজরদারি শুরু করেন বাসিন্দারা৷

আরও পড়ুন: হিজাব খুলতে বলায় পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা

এরপরই এদিন স্থানীয় বাসিন্দারা ওই ঘরে তল্লাশি চালাতে যান৷ বাসিন্দাদের দাবি, সেখানে ফিজিওথেরাপির কোনও যন্ত্রাংশই দেখতে পাওয়া যায়নি৷ আপত্তিজনক অবস্থায় ৯ জন মহিলা ও পাঁচ জন পুরুষকে হাতে নাতে ধরে ফেলেন তাঁরা৷ খবর পেয়ে সোনারপুর থানার পুলিশ ৯জন মহিলা সহ ১৪জনকে গ্রেফতার করেছে৷ চক্রের পাণ্ডার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷